লাইফস্টাইল

যারা ঝগড়া করেন, তাদের মধ্যেই প্রেম বেশি

লাইফস্টাইল ডেস্ক : এটা জানার জন্য অবশ্য কোনো মনোবিজ্ঞানীর প্রয়োজন পড়ে না। যে কোনো অনুভূতিশীল মানুষ, বিবাহিত অথবা সিরিয়াস সম্পর্কে রয়েছেন এমন কেউ যদি হন, তবে তিনি নিজেকে দিয়েই সেটা বুঝতে পারবেন।

মনের মানুষের সঙ্গে ধুন্ধুমার ঝগড়া করার বেশ কিছুক্ষণ পর যখন মন কেমন করে, অথবা সেই মনের মানুষ রেগেমেগে মোবাইল বন্ধ করে রাখে, ঠিক তখন নিজেই যখন আবার ফোন করেন, আর তখনই ঝগড়াকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে জিতে যায় প্রেম।

তবে সাধারণ বুদ্ধি-বিবেচনায় অনেকেই সেটা বুঝতে পারে না। ‘গার্ডিয়ান’-এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এ ব্যাপারে সম্পর্ক বিশেষজ্ঞ জোসেফ গ্রেনিকে উদ্ধৃত করা হয়েছে।

গ্রেনি হলেন সম্পর্ক সংক্রান্ত ‘ক্রুশিয়াল কনভারসেশন’-এর সহ-রচয়িতা। তার মতে, দম্পতিদের সবচেয়ে বড় ভুল হলো এড়িয়ে যাওয়া। আমরা ভাবি কিন্তু মুখে বলি না, অন্তত যতক্ষণ না পুরো ব্যাপারটা অসহ্য হয়ে ওঠে, ততক্ষণ পর্যন্ত না। আমরা আসলে এই সব কথোপকথনগুলো এড়িয়ে যাই এটা ভেবে যে, বললে অনেক কিছু হতে পারে। কিন্তু আমরা এটা বুঝি না যে না বললেও অনেক কিছু হতে পারে।

ওই প্রতিবেদনেই প্রকাশিত একটি সমীক্ষার ফলাফল বলছে, যে সমস্ত দম্পতিরা ঝগড়া করেন, তারাই সম্পর্কের দিক থেকে অনেক বেশি সুখী। তাদের থেকে, যারা সচরাচর সমস্ত মতান্তর-মনান্তর ঝুলিতে লুকিয়ে রাখেন।

এ সংক্রান্ত একাধিক মার্কিন গবেষণার ফলাফলও তাই বলছে। একটি সাম্প্রতিক গবেষণায় জানা গেছে, ৪৪ শতাংশ মার্কিন দম্পতি মনে করেন যে সপ্তাহে অন্তত একবার গুছিয়ে ঝগড়া হওয়ার মানে তাদের পারস্পরিক যোগাযোগ বেশ ভালো।

আসলে সম্পর্কে ঝগড়া যত বেশি, তত বেশি উষ্ণ সেই সম্পর্ক। পরস্পরের কাজ নিয়ে, ভাবনা নিয়ে প্রশ্ন তোলা, তার সমালোচনা করা অথবা অভিমান করা, এই সব কিছুই সম্পর্ককে উজ্জীবিত রাখে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button