আন্তর্জাতিক

ভারতে হামলার পরিকল্পনা!

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দিল্লিসহ ভারতের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন দফতরে হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে ১০ জঙ্গিকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে দেশটির জাতীয় তদন্ত সংস্থা এনআইএ। সংস্থাটির ধারণা, গ্রেফতারকৃতরা জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) আদর্শে উদ্বুদ্ধ হরকাত-উল-হারব-ই-ইসলামের সঙ্গে যুক্ত।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বুধবার সকালে ১৭টি যৌথ অভিযান চালায় এনআইএ, উত্তর প্রদেশ পুলিশের সন্ত্রাস দমন শাখা এবং দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল। সন্দেহভাজন হওয়ায় ১৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের পর ১০ জনকে গ্রেফতার করে তারা।

গ্রেফতার ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন একজন প্রকৌশলী, কয়েকজন কলেজছাত্র ও একজন ওয়েল্ডিং এক্সপার্ট। গোপনসূত্রে খবর পেয়ে এ অভিযান চালানো হয়।

তল্লাশি অভিযান শেষে সংবাদ সম্মেলনে এনআইএর আইজি অলোক মিত্তাল জানান, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দিল্লির সিলামপুর, উত্তর প্রদেশের আমরোহা, হাপুর, মেরঠ ও লক্ষ্ণৌসহ মোট ১৭টি জায়গায় অভিযান চালানো হয়। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে ২৫ কেজি বিস্ফোরকসহ পটাশিয়াম নাইট্রেট, অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের মতো প্রচুর রাসায়নিক উদ্ধার করা হয়।

এ ছাড়াও পাওয়া গেছে ১২টি পিস্তল, ১১২টি অ্যালার্ম ঘড়ি ও প্রায় ১৫০ রাউন্ড বুলেট। এমনকি দেশীয় প্রযুক্তিততে তৈরি একটি রকেট লঞ্চারও মিলেছে। এ ছাড়াও উদ্ধার হয়েছে সাড়ে ৭ লাখ টাকা, ৯১টি মোবাইল ফোন, ১৩৫টি সিম কার্ড, একাধিক ল্যাপটপ ও সহস্রাধিক মেমরি কার্ড।

এনআইএ দাবি করছে, দেশে ধারাবাহিক হামলার পরিকল্পনা করছিল হরকাত-উল-হারব-ই-ইসলামের সদস্যরা। আগামী ২৬ জানুয়ারি ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসকে সামনে রেখে দিল্লি ও উত্তর প্রদেশের বেশ কিছু স্থাপনায় আত্মঘাতী ও দূর নিয়ন্ত্রিত (রিমোট কন্ট্রোল) বোমা হামলার পরিকল্পনা করে আসছিল তারা।

গত চারমাস ধরে এই পরিকল্পনা চালাচ্ছিল তারা। হামলার তালিকায় দিল্লি পুলিশের দফতর ও রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) সদর দফতর ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বও রয়েছে।

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button