গাজীপুর

গাজীপুরে পাঠদানে যুক্ত না থেকেও আইসিটি ট্রেনিংএ প্রশিক্ষণার্থী!

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : গাজীপুরে আইসিটি’র মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার প্রচলন প্রকল্পে (২য় পর্যায়) পাঠদানের সঙ্গে যুক্ত নন এমন অনেককে কম্পিউটার প্রশিক্ষণে অংশগ্রহনের সুযোগদানের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় অভিযোগের সত্যতা পেয়ে প্রশিক্ষণের তদারকিতে থাকা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে।

গাজীপুর জেলা জুড়ে গত ২৩ জুন থেকে ছয়দিনব্যাপি এ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে শুধু সদর উপজেলায় ৩৩ টি ভ্যেনুতে ১৩৪ ব্যাচে ২৬৮০ জন প্রশিক্ষণে অংশ নেন। এ জন্য প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে ১২ শ’ টাকা ও ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য আরও দেড় শ’ টাকা প্রদান করা হয়।

প্রশিক্ষণ-সংশ্লিষ্টরা জানান, জেলা শহরের কাজী আজিমউদ্দিন কলেজ ও রোভার পল্লী ডিগ্রী কলেজসহ বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান লাইব্রেরিয়ান, প্রদর্শক , ক্রীড়া শিক্ষকদের প্রশিক্ষণে পাঠান। এসব পদবিধারীরা শিক্ষক হিসাবে গণ্য হলেও পাঠদানের সঙ্গে জড়িত নন বিধায় এ প্রশিক্ষণের আওতার বাইরে।

এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রেবেকা সুলতানা বলেন, ভেন্যুপ্রধানদের উপর দায়িত্ব ছিল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে চিঠি দিয়ে প্রশিক্ষণার্থী চাওয়ার। সেভাবেই কাজ হয়েছে। কিন্তু কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান প্রধান চিঠির ভাষা না বুঝে বা ইচ্ছেকৃতভাবে পাঠদানে জড়িত নন এমন ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণে পাঠিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন , কয়টি প্রতিষ্ঠানের কতজন এ জাতীয় প্রশিক্ষণার্থী ছিল তার পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন চেয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। গত ৪ জুলাই ইস্যু করা চিঠিতে প্রতিবেদনের জন্য তিন কর্মদিবস সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

শহরের রাণী বিলাসমনি সরকারি বালক বিদ্যালয় ভেন্যুতে প্রশিক্ষণ নেওয়া একাধিক শিক্ষক জানান, প্রথম দিনেই একজন প্রশিক্ষক ক্রীড়া শিক্ষক ও প্রদর্শকরা প্রশিক্ষণের আওতাভুক্ত কী-না এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেন। তিনি সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে মুঠোফোনে কথাও বলেন। কিন্তু উপর থেকে নির্দেশনা না আসায় তাদের আর বাদ দেওয়া হয়নি।

 

সূত্র: বহুমাত্রিক.কম

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button