অর্থনীতিজাতীয়

এক দিনে প্রায় ১৮ হাজার কোটি টাকা ধার দিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : প্রকট তারল্য সংকট চলছে দেশের ব্যাংকগুলোতে। সংকট মেটাতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ধার নেওয়া অব্যাহত রেখেছে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো। গতকাল রোববার নিলামে ৪২টি ব্যাংক ও ৪ ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান (এনবিএফআই) রেপো ও তারল্য সহায়তা সুবিধার মাধ্যমে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছ থেকে ১৭ হাজার ৯২ কোটি ৪ লাখ টাকা ধার নিয়েছে।

সোমবার (২০ মে) বাংলাদেশ ব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছে, রোববার (১৯ মে) বাণিজ্যিক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক রেপো এবং অ্যাসিউরড লিকুইডিটি সাপোর্ট ফ্যাসিলিটি (এএলএসএফ) এর নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। ওই নিলামে ১ দিন মেয়াদি রেপো সুবিধার আওতায় ৪টি ব্যাংক মোট ৩০৭ কোটি ৮৭ লাখ টাকার ১৩টি বিড, ৭ দিন মেয়াদি রেপো সুবিধার আওতায় ২২টি ব্যাংক ও ০৪টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান মোট ৮ হাজার ৯২৪ কোটি ৮০ লাখ টাকার ১৫৯টি বিড এবং ১ দিন মেয়াদি অ্যাসিউরড লিকুইডিটি সাপোর্ট ফ্যাসিলিটির আওতায় ১৬টি পিডি ব্যাংক মোট ৭,৮৫৯ কোটি ৩৭ লাখ টাকার ৭৩টি বিড দাখিল করে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরও জানায়, অকশন কমিটি কর্তৃক সকল বিডই গৃহীত হয়। ফলে রেপো এবং এএলএসএফ এর আওতায় সর্বমোট ১৭ হাজার ৯২ কোটি ৪ লাখ টাকা প্রদান করা হয়। উল্লিখিত ১ দিন ও ৭ দিন মেয়াদি রেপো এবং অ্যাসিউরড লিকুইডিটি সাপোর্ট ফ্যাসিলিটি এর সুদের হার ছিল যথাক্রমে বার্ষিক শতকরা ৮ দশমিক ৫, ৮ দশমিক ৬০ ও ৮ দশমিক ৫০ শতাংশ।

ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, উচ্চ মূল্যস্ফীতি, বৈদেশিক মুদ্রা সংকট, সরকারি ট্রেজারি বিলের ক্রমবর্ধমান সুদের হার ও নীতি হার বৃদ্ধির কারণে সামগ্রিক ব্যাংকিং খাতে তারল্য সংকট তৈরি হয়েছে। কোনো কোনো ব্যাংক এখন কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে তারল্য সহায়তা নিয়ে ট্রেজারি বিলে বিনিয়োগ করছে। কারণ ট্রেজারি বিলের সুদহার ১১ শতাংশ ছাড়িয়েছে।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, ব্যাংকিং খাতে তারল্যের সংকটের মধ্যে ব্যাংকগুলো গত কয়েক মাস ধরে প্রতি কার্যদিবসে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে তারল্য সহায়তা পাচ্ছে। এখন ব্যাংকগুলোকে তারল্য সহায়তা কমিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আগামী জুলাই থেকে রেপোর মাধ্যমে তারল্য সহায়তা প্রতিদিনের পরিবর্তে সাপ্তাহিক হবে।

এরকম আরও খবর

Back to top button