আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রে তুষারঝড়: হাজারো ফ্লাইট বাতিল, বিদ্যুৎহীন লাখো পরিবার

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যপশ্চিমাঞ্চলে আঘাত হেনেছে শীতকালীন ঝড়। শুক্রবার আঘাত হানা ঝড়ের কারণে মিশিগান এবং উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যের আড়াই লাখের বেশি গ্রাহক বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন। বাতিল ও বিলম্বিত হয়েছে হয়েছে হাজার হাজার ফ্লাইট।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, ঝড়ো বাতাস ও ভারী তুষারপাতের কারণে বাতিল করা হয়েছে দুই হাজারের বেশি ফ্লাইট। এছাড়া শিকাগোর ও’হারে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ যুক্তরাষ্ট্রে শুক্রবার ৭ হাজার ৬শ’ টিরও বেশি ফ্লাইট বিলম্বিত হয়েছে। মধ্যপশ্চিম ও দক্ষিণে ফ্লাইট বিলম্ব এবং বাতিলের কারণে শত শত যাত্রী মার্কিন বিমানবন্দরে আটকা পড়েন।

ফ্লাইট ট্র্যাকিং ওয়েবসাইট ‘ফ্লাইট অ্যাওয়ার ডটকম’-এর উদ্ধৃত দিয়ে সিএনএন এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘ঝড়ের কারণে এ পর্যন্ত দুই হাজার ৪০০টিরও বেশি ফ্লাইট বিলম্বিত হয়েছে এবং দুই হাজারের বেশি ফ্লাইট বাতিল হয়েছে ।’ শিকাগোর ‘ও’হার’ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ৩৬ শতাংশ অন্তর্মুখী ফ্লাইটের মধ্যে প্রায় ৪০ শতাংশ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। শিকাগো মিডওয়ে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর আউটবাউন্ড এবং ইনবাউন্ড উভয় ফ্লাইটের প্রায় ৬০ শতাংশ বাতিল করেছে।

ডেল্টা এয়ারলাইন্স বলেছে, ‘আজকে মধ্য-পশ্চিমের আবহাওয়ার অবস্থা এবং আগামীকাল এই অঞ্চলের শীতকালীন আবহাওয়ার কারণে আমরা কিছু অপারেশনাল চ্যালেঞ্জের মধ্যে পড়েছি।’ সাউথওয়েস্ট এয়ারলাইন্স বলেছে, শিকাগো, ডেট্রয়েট এবং ওমাহাতে তাদের কিছু ফ্লাইটে সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএএ) বৃহস্পতিবার সতর্ক করে বলেছিল, মেঘ, তুষারপাত এবং বায়ু প্রবাহের কারণে নির্দিষ্ট বিমানবন্দরগুলোতে ফ্লাইট বিলম্বিত করতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের পাওয়ার আউটেজেস ডট ইউএস এর তথ্য মতে, শুক্রবার মিশিগান অঙ্গরাজ্যের এক লাখ ৩৭ হাজার ৭৭৭টি বাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বিদুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। আর উইসকনসিনে বিদুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে এক লাখ দুই হাজার ৬৯৪ জন গ্রাহক।

মধ্য আটলান্টিকে সৃষ্ট ঝড়টির তাণ্ডবে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে দেখা দিয়েছে ভয়াবহ বন্যা। ঝড়টির তাণ্ডবে নিউ হ্যাম্পশায়ার ওহাইয়োতে প্লাবিত হয় একাধিক শহর।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, নিউইয়র্ক, ফিলাডেলফিয়া, বোস্টনের মতো গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোতেও আঘাত হানবে ঝড়টি। মিনেসোটা ও এর আশপাশের অঙ্গরাজ্যেও আঘাত হেনেছে তুষারঝড়। বৈরী আবহাওয়ার কারণে এক সপ্তাহের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে নর্থ ও সাউথ ডাকোটা এবং কলোরাডো অঙ্গরাজ্যের শতাধিক স্কুল। ৩০ হাজারের বেশি শিক্ষার্থীর অনলাইনে ক্লাস নেয়া হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, মিনিয়াপোলিসসহ কয়েকটি শহরে সর্বোচ্চ ২০ ইঞ্চি পর্যন্ত তুষারপাত হতে পারে। আর ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে ঘণ্টায় ৭২ কিলোমিটার বেগে।

চলতি সপ্তাহের এই ঝড়টি ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে আঘাত হানা ঝড়ের মতো প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তখন টেক্সাসসহ যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান অঙ্গরাজ্যগুলোতে টানা কয়েকদিনের জন্য লাখ লাখ মানুষ বিদুৎবিচ্ছিন্ন, তাপ ও পানির অভাবে ছিলেন।

এরপর, ২০২২ সালের ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বাঞ্চলে এলিয়ট নামের একটি শীতকালীন ঝড়ের আঘাতে মুখ থুবড়ে পড়েছিল অঞ্চলটির বিদ্যুৎ ও জ্বালানি শিল্প। সেখানে বেশকিছু দিন বিদ্যুৎ ও গ্যাসের সংকটে ছিলেন বাসিন্দারা।

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button