জাতীয়সারাদেশ

দেশি পেঁয়াজ বাজারে এলে দাম কমে যাবে: তথ্যমন্ত্রী

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : এক সপ্তাহের মধ্যেই পেঁয়াজের দাম কমে আসবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, ভোক্তা অধিকার অধিদফতরের অভিযানে বাজারে কিছুটা শৃঙ্খলা ফিরে আসলেও পুরোপুরি আসেনি। তবে পেঁয়াজের দাম সহসা কমে যাবে। এক সপ্তাহের মধ্যে দেশি পেঁয়াজ বাজারে এলে দাম কমে যাবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, পেঁয়াজের দাম বাড়ার কোনো কারণ ছিল না। ভারত পেঁয়াজ মার্চ মাস পর্যন্ত রফতানি বন্ধের ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে বেড়ে যাওয়া আমাদের সব পর্যায়ের ব্যবসায়ীর অসৎ মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ ছাড়া কিছু নয়।

সোমবার (১১ ডিসেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

গত ৭ ডিসেম্বর পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে গেজেট প্রকাশ করে ভারত। যেখানে বলা হয় ৮ ডিসেম্বর থেকে আগামী বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত ভারত পেঁয়াজ রফতানি নিষিদ্ধ করছে। আসন্ন লোকসভা নির্বাচন সামনে রেখে দেশটির সরকার বাজারে দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল রাখতেই দেশটি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে ভারতের বিশ্লেষকরা বলছেন।

বাংলাদেশে ভারতের পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের খবর আসার পরই দাম বাড়তে থাকে নিত্যপণ্যটির। এক রাতের ব্যবধানে দ্বিগুণ হয়ে যায় পেঁয়াজের দাম।

সবিচালয়ে পেঁয়াজ নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, হঠাৎ করে প্রতি কেজিতে ৫০ টাকা থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে যাওয়া কোনোভাবেই সমীচীন নয়। ভোক্তা অধিকার অধিদফতর এরই মধ্যে অভিযান শুরু করেছে। তারা জরিমানা করেছে। এতে বাজারে কিছুটা শৃঙ্খলা ফিরে আসলেও পুরোপুরি আসেনি। যেকোনো কিছু হলেই দাম বাড়িয়ে দেওয়ার যে মানসিকতা এটির বিরুদ্ধে গণমাধ্যমেও যদি রিপোর্টিং হয় তাহলে সেটি নিয়ন্ত্রণে সহায়ক হবে। তবে পেঁয়াজের দাম সহসা কমে যাবে। কারণ এক সপ্তাহের মধ্যে দেশি পেঁয়াজ বাজারে আসা শুরু করবে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, গত দুই সপ্তাহে বেশিরভাগ দ্রব্যের মূল্য কমেছে। গরুর মাংস আমার এলাকায় ৫৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে মাইকিং করে। যেটি কয়দিন আগেও সাড়ে সাতশ-আটশ টাকা ছিল। শাক-সবজি ও অন্যান্য পণ্যের দামও কমেছে। পেঁয়াজের দামটা হঠাৎ করে বেড়েছে। পেঁয়াজের দাম যেভাবে লাফিয়ে বেড়েছে সে বিষয়ে আমি একমত।

‘ভোক্তাদের একটা ট্রেন্ড আছে, কোনো পণ্যের সংকট হচ্ছে এমন গুজব রটলেও আমরা সবাই গিয়ে এক কেজির জায়গায় পাঁচ কেজি কেনা শুরু করি। এতে করে ব্যবসায়ীরা আরও সুযোগ পায়। এটির ক্ষেত্রেও আমাদের সতর্ক হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করি।’-যোগ করেন হাছান মাহমুদ।

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button