গাজীপুর

টঙ্গীতে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে প্রেসক্লাবে মানববন্ধন

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : তারাবি নামাজের জায়গাকে কেন্দ্র করে বহিরাগত সন্ত্রাসী ও কারখানার কর্মকর্তাদের হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে টঙ্গীর ‘আইএফএল ফ্যাক্টরি লিমিটেডে’র কর্মচারীরা।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ হামলার প্রতিবাদে কারখানার কর্মীরা এ মানববন্ধনে অংশ নেন।

ওই হামলায় গুরুতর আহত শম্পা নামে এক কর্মী বলেন, কারখানাটিতে আমি প্রায় এক বছর ধরে কাজ করছি। আমাদের বিভিন্ন ন্যায্য দাবি কারখানার কর্তৃপক্ষদের জানিয়েছি। কিন্তু তারা তা কর্ণপাত করছে না।

তিনি বলেন, সর্বশেষ রমজানের আগে তারাবি নামাজের জায়গা করে দেয়ার দাবি আমরা জানিয়েছিলাম। সেটিও তারা শুনেননি। এর প্রেক্ষিতে গেল শুক্রবার কারখানার জিএম মোশারফ পাঞ্জাবী পড়া নিষিদ্ধ করেন।

শম্পা বলেন, এর আগে এপ্রিল মাসের ১১ তারিখ কারখানাটি কোন কারণ ছাড়াই তিন দিনের ছুটি ঘোষণা করে। এ ছাড়া ৬৬ জন শ্রমিকের ছবিসহ একটি তালিকা ঝুলিয়ে দেয়া হয়। পরে কারখানাটি খুললে তাদের ঢুকতে বাধা দেয়া হয় এবং কারখানার সামনে পুলিশ দিয়ে হুমকি দেয়া হয়।

এর আগে ৭ মে দুপুর ১২ টায় ছাঁটাইকৃত শ্রমিকদের পুনর্বহালের দাবিতে কারখানার সামনে তারা অবস্থান নেয়। পরে সন্ধ্যা ছয়টার দিকে কারখানাটির মালিক প্রকাশ সিং এবং হেড অফ অপারেশন সিজু জনের নির্দেশে ভাড়া করা বহিরাগতরা রড দিয়ে ৬৬ শ্রমিকের উপর এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে আঘাত করে।

এতে অপারেশন সেকশনের রিমা, নিপা, শম্পাকে গুরুতর আহত অবস্থায় টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়। বর্তমানে দুজন শ্রমিক ঢাকা মেডিকেল কলেজের চিকিৎসা নিচ্ছেন আর বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

এ সময় তারা আহত শ্রমিকদের পূর্ণ চিকিৎসা ও দোষীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেয়া এবং ৬৬ শ্রমিককে চাকরিতে পুনর্বহাল করার দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ তৃণমূল গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি শামীম খান, জাতীয় শ্রমিক জোট বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক নইমূল আহসান জুয়েলসহ কারখানার আহত শ্রমিকরা উপস্থিত ছিলেন।

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button