বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

একজনের নামে ১৫টির বেশি সিম থাকলে তা দ্রুত বাতিল করার নির্দেশ

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : কোনো ব্যক্তির জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে ১৫টির বেশি সিম থাকলে তা দ্রুত বাতিল করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। আগামী ১৫ নভেম্বরের মধ্যে তা না করলে বিটিআরসি নিজ উদ্যোগেই তা করবে।

রোববার (৩০ অক্টোবর) এক বিজ্ঞপ্তিতে বিটিআরসি জানিয়েছে, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী একজন গ্রাহক জাতীয় পরিচয়পত্র, স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র, ড্রাইভিং লাইসেন্স, জন্মনিবন্ধন সনদ ও পাসপোর্টের বিপরীতে সব অপারেটর মিলিয়ে সর্বোচ্চ মোট ১৫টি সিম নিবন্ধন করতে পারবেন।

যাঁদের ১৫টির বেশি নিবন্ধিত সিম আছে, তাঁদের পছন্দ অনুযায়ী ১৫টি সিম রেখে বাকি সিমগুলো বাতিল করার জন্য আগামী ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছে বিটিআরসি। এ সময়ের মধ্যে অতিরিক্ত সিম অনিবন্ধন করতে ব্যর্থ হলে বিটিআরসি দৈবচয়ন পদ্ধতিতে তা অনিবন্ধন করবে।

কোনো গ্রাহকের ১৫টির বেশি সিম থাকলে তিনি তাঁর কাছাকাছি মুঠোফোন অপারেটরের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে তা অনিবন্ধন করতে পারবেন।

বিটিআরসি জানিয়েছে, এনআইডি ও স্মার্ট এনআইডির বিপরীতে নিবন্ধিত সিম–সংক্রান্ত তথ্য *১৬০০১# নম্বরে ডায়াল করে জানা যাবে। নম্বরটি ডায়াল করার পর ব্যক্তির পরিচয়পত্রের শেষ চারটি নম্বর জানতে হয়। সেই নম্বরটি দিলে ফিরতি খুদে বার্তায় সিমের সংখ্যা জানানো হয়।

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button