গাজীপুর

শ্রীপুরে নানাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে নাতি আটক

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : শ্রীপুরে নানাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে নাতিকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলা রাজাবাড়ী ইউনিয়নের বড়চালা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আ: হক মাদবর (৯৫) বড়চালা গ্রামের মৃত দোখাই মাদবরের ছেলে। অভিযুক্ত নাতি আব্দুল খালেক (২৫)।

স্বজনদের বরাত দিয়ে রাজাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ড সদস্য গিয়াস উদ্দিন জানান, নিহত আ: হক মাদবর ও তার ছেলে হারুন মাদবর পাশাপাশি কক্ষে থাকেন। হারুনের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল বাবার কক্ষেই রাখতেন। হারুন মাদবর রাত সাড়ে ১০টার দিকে মোটরসাইকেল দিয়ে বাড়িতে প্রবেশকালেই হঠাৎই পেছন থেকে তার মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে। পেছন ফিরে তার ভাগ্নে আব্দুল খালেককে দেখতে পান, সাথে সাথে লাঠি দিয়ে পুনরায় আরেকটি আঘাত করে খালেক দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে হারুণকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দিয়ে রাত তিনটার দিকে বাড়িতে আনা হয়। পরিবারের লোকজন হারুণের চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় রাতে তার বাবার খোঁজ নেয়নি কেউ। সকালে তার বাবাকে ঘরে না পেয়ে খোঁজ করতে থাকেন।

খোঁজাখোঁজির এক পর্যায়ে পাশের ঘরে মেঝেতে বস্তায় ঢাকা বাবার মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। তারা ধারণা করছে, ভাগ্নে আব্দুল খালেকই তার নানাকে হত্যা করে ঘরের মেঝেতে বস্তায় ঢেকে রেখে পালিয়েছে। নিহতের মাথায় আঘাত ও নাকে আঘাতের চিহ্ন আছে, কান দিয়েও রক্ত বের হচ্ছিল।

শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানান, পারিবারিক বিরোধীদের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। ঘটনার পরপরই অভিযুক্তকে পুলিশি হেফাজতে আনতে তার বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের খোঁজ খবর নেয়া হয়। শনিবার সকাল ১০টার দিকে ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের মশাখালী এলাকা থেকে আব্দুল খালেককে আটক করা হয়েছে। তাকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদে বিস্তারিত ঘটনা জানা যাবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button