আন্তর্জাতিক

এক হাজারের বেশি ক্ষেপণাস্ত্র তৈরী করবে তাইওয়ান

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আগামী পাঁচ বছরে এক হাজারেরও বেশি জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির পরিকল্পনা করেছে তাইওয়ানের জাতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। চীনের নৌ-বাহিনীকে মোকাবেলা করতে এ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছেন বিষয় সম্পর্কে অবগত এক প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা।

ওই কর্মকর্তার বরাতে তাইওয়ানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম তাইপে টাইমস জানায়, এ পরিকল্পনার অধীনে তাইওয়ানের চুংশান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি প্রতি বছর ১৩১টি সিউং ফেং টু এবং সিউং শেং ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করবে। পাশাপাশি প্রতি বছর ৭০ সিউং ফেং থ্রি বা থ্রি ই ক্ষেপণাস্ত্রও তৈরি করবে।

সম্প্রতি মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের পর চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) নৌ-বাহিনী তাইওয়ান ঘিরে ধারাবাহিক সামরিক মহড়া শুরুর পর এ মন্তব্য এসেছে।

ওই কর্মকর্তা আরো জানায়, চীন গত কয়েক বছরে দ্রুত সময়ের মধ্যে অনেক যুদ্ধজাহাজ তৈরি করেছে এবং তাদের নৌ-বাহিনীতে যুক্ত করেছে। এ বড় জাহাজগুলো তাইওয়ান প্রণালীর সংকীর্ণ সীমানার চেয়ে উন্মুক্ত সাগরে যুদ্ধের জন্য বেশি উপযোগী।

তাইওয়ানের রাডার সিস্টেম এবং জাহাজ প্রতিরোধী ক্ষেপণাস্ত্র ইউনিটগুলো জলপথে তার স্টেশনগুলোর নিকটে বড় বা মাঝারি আকারের যুদ্ধজাহাজগুলোকে চিহ্নিত করতে সক্ষম। যা সম্প্রতি তাইওয়ান ঘিরে চীনের নৌ মহড়া এবং অন্যান্য কার্যক্রমের সময় তাদের দক্ষতা দ্বারা প্রমাণিত হয়েছে।

এছাড়া তাইওয়ান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ১০০টি হারপুন ক্ষেপণাস্ত্র লঞ্চার এবং ৪০০টি ক্ষেপণাস্ত্র পাবে বলে আশা করছে। একাধিক ধরণের ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করার ফলে শত্রুপক্ষের জাহাজে হামলার সক্ষমতা বাড়বে তাইওয়ানের। চীন যদি কখনো হামলার চেষ্টা চালায় তাদেরকে অনেক মূল্য চুকাতে হবে।

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button