আন্তর্জাতিক

কিস্তানে সেনা কর্মকর্তাদের নিয়ে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, সবাই নিহত

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশে সেনা কর্মকর্তাদের নিয়ে নিখোঁজ হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গেছে। হেলিকপ্টারটিতে থাকা ছয়জনই মারা গেছেন।

বেলুচিস্তান পুলিশের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল পারভেজ খান উমরানি জানান, বেলুচিস্তানের সাসি পুনু মাজারের মোসা গোথের কাছে বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারটির খোঁজ মিলেছে।

দেশটির সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, হেলিকপ্টারটি কোয়েটা থেকে করাচি যাচ্ছিল। গতকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এটি নিখোঁজ হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মোট ছয়জন ছিলেন ওই হেলিকপ্টারে। হেলিকপ্টারটির পাইলট মেজর সাঈদ এবং কো–পাইলট ছিলেন মেজর তালহা। সেখানে আরও ছিলেন কোয়েটার কর্প কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল সরফরাজ আলি, কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার আমজাদ, প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার খালিদ এবং প্রধান নায়েক মুদাসসির।

পাকিস্তান সেনাবাহিনী জানিয়েছে, দক্ষিণ বেলুচিস্তান প্রদেশের লাসবেলা জেলায় বন্যার ত্রাণ কার্যক্রমে সহায়তা করছিল একটি অ্যাভিয়েশন হেলিকপ্টার। হঠাৎ বিমানের ট্রাফিক কন্ট্রোলের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে হেলিকপ্টারটির।

আজ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বেলুচিস্তানের লাসবেলা জেলার সিনিয়র পুলিশ সুপার জানান, পর্বতের হাজি মোসা গোথ থেকে হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে। এটি সাকরানের আব্বাস পুলিশ পোস্ট থেকে ৭-৮ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

পুলিশ জানিয়েছে, হেলিকপ্টারটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে। তারা ওই এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছে। হেলিকপ্টারে থাকা ছয়জন সেনা কর্মকর্তা ও সৈন্যের সবাই মারা গেছেন।

খারাপ আবহাওয়ার কারণে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের আন্তবাহিনী জনসংযোগ বিভাগ (আইএসপিআর)।

টুইটারে এক বিবৃতিতে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, ‘সেনাবাহিনীর অ্যাভিয়েশন হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়া এবং বিমানটিতে থাকা ছয়জনের শহীদ হওয়ার ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। শহীদদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা ও প্রার্থনা।’

তিনি বলেন, ‘লেফটেন্যান্ট জেনারেল সরফরাজ আলিকে জানার সৌভাগ্য আমার হয়েছিল। যাকে আমি একজন পুরোপুরি পেশাদার এবং একজন সৎ মানুষ বলে মনে করি।’

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button