‘নিশ্চিন্তে থাকুন’- নরেন্দ্র মোদিকে ফোনে বললেন ভ্লাদিমির পুতিন

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর গত চার মাসে আমেরিকা ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন বহুবার এ অভিযোগ করেছে যে, রাশিয়া ইউক্রেনের খাদ্যশস্য রপ্তানি করতে বাধা দিচ্ছে। পশ্চিমা দেশগুলো দাবি করছে, মস্কো বিষয়টিকে কিয়েভের বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয়ের হাতিয়ারে পরিণত করেছে। অন্যদিকে রাশিয়া দেশটির ওপর পশ্চিমাদের আরোপিত নিষেধাজ্ঞাকে বিশ্বে খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার প্রধান কারণ বলে উল্লেখ করেছে। মস্কো বলছে, পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়ার খাদ্য ও কৃষিপণ্য রপ্তানিকে স্থবির করে দিয়েছে।

এ অবস্থায় শনিবার রাতে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করে রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, কিছু পশ্চিমা দেশের পদ্ধতিগত ভুলের কারণে বিশ্ব বাজারে খাদ্যপণ্যের বাণিজ্য বাধাগ্রস্ত হয়েছে এবং এ কারণে এসব পণ্যের দাম বেড়ে গেছে। তবে রাশিয়া ভারতকে প্রয়োজনীয় সব পণ্য সরবরাহ চালিয়ে যাবে বলে নিশ্চয়তা দেন ভ্লাদিমির পুতিন।

নরেন্দ্র মোদি জার্মানিতে অনুষ্ঠিত শিল্পোন্নত সাত জাতিগোষ্ঠী জি-৭ এর শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণ শেষে দিল্লিতে ফেরার তিন দিন পর পুতিনের সঙ্গে তার ফোনালাপ অনুষ্ঠিত হলো। জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনে রাশিয়ার ওপর আরো বেশি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে দেশটির ওপর চাপ বৃদ্ধির উপায় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

ফোনালাপে গত ডিসেম্বরে পুতিনের ভারত সফরে স্বাক্ষরিত চুক্তিগুলো বাস্তবায়নের ওপর জোর দেয়া হয়েছে। নয়াদিল্লি ও মস্কোর মধ্যে বাণিজ্য বৃদ্ধির উপায় নিয়েও আলোচনা করেন মোদি ও পুতিন। রাশিয়া ইউক্রেনের অভিযান শুরু করার পর মস্কোর ওপর পাশ্চাত্যের আরোপিত নিষেধাজ্ঞায় যোগ দেয়নি ভারত। উল্টো রাশিয়া থেকে খাদ্যশস্য, জ্বালানী ও সমরাস্ত্র আমদানি বাড়িয়ে দিয়েছে নয়াদিল্লি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.