গাজীপুর

খসড়া গঠনতন্ত্র: কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর জন্য খসড়া গঠনতন্ত্র/অতিরিক্ত বিধিমালা প্রকাশ করা হয়েছে।

খসড়া গঠনতন্ত্রে বলা হয়েছে শুধুমাত্র দাতব্য ও কল্যানমুলক কাজের জন্য কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন সংগঠিত করা হয়েছে। 

খসড়া গঠনতন্ত্র ও বিধিমালা প্রণয়ন এবং প্রকাশ করেছেন কালীগঞ্জ আর আর এন পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ‘অস্টিন পি স্টেট ইউনিভার্সিটি’র অধ্যাপক ডঃ মোহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান মানিক।

প্রকাশিত খসড়া গঠনতন্ত্র ধারা ১:

প্রতিষ্ঠানের নাম: কালীগঞ্জ রাজা রাজেন্দ্র নারায়ণ (আর.আর.এন) পাইলট গভর্নমেন্ট হাই স্কুল প্রাক্তন ছাত্র এসোসিয়েশন -এর নাম হবে “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” I এই ‘অ্যালামনাই এসোসিয়েশন ’ইংরেজিতে “Kaliganj R.R.N. Pilot Government High School Alumni Association” নামে অভিহিত হবে I

ধারা ২: অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন হলো একটি অরাজনৈতিক, সামাজিক, অলাভজনক এবং দাতব্য প্রতিষ্ঠান “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” হলো একটি অরাজনৈতিক, সামাজিক, অলাভজনক এবং দাতব্য প্রতিষ্ঠান বা সংস্থা এবং একথা সর্বসম্মতিক্রমে স্পষ্টভাবে ঘোষণা করা হলো যে এই প্রাক্তন ছাত্র সমিতি শুধুমাত্র দাতব্য ও কল্যানমুলক কাজের জন্য সংগঠিত করা হয়েছে। “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” সমাজসেবামূলক, অলাভজনক এবং দাতব্য কাজের জন্য সরকারের সমাজসেবা অধিদপ্তর হতে নিবন্ধন নিতে পারবে।

ধারা ৩: অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর প্রধান কার্যালয় ও বর্তমান ঠিকানা বাস্তবতার পরিপ্রেক্ষিতে ও প্রয়োজনে নবপ্রতিষ্ঠিত “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” এর বর্তমানের প্রধান কার্যালয় হবে স্কুলের খেলার মাঠের উত্তর পাশে অবস্থিত পাকা দালানের ভাড়া করা একটি কক্ষে (ঠিকানা: ??????? )I

বাংলাদেশের অন্য সব স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যলামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর মত আশা করা যায় যে “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর প্রধান কার্যালয় (অবশ্য স্কুল কর্তৃপক্ষ ও সরকারের অনুমোদনক্রমে) কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুলের চহদ্দীতেই অবস্থিত হবে। তবে এমন আখাঙ্খা পূরণ করার উদ্দেশ্যে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনকে অবশ্যই কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুলের প্রাক্তন ও বর্তমান ছাত্রদের কল্যাণে ও উন্নতিকল্পে কাজকর্ম করে উদাহরণ সৃষ্টির প্রচেষ্টা চালাতে হবেI

ধারা ৪: মনোগ্রাম, সিলমোহর ও পরিচয়পত্র কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন”-এর নিজস্ব মনোগ্রাম থাকবে, যা কার্যনির্বাহী কমিটির সাধারন সম্পাদকের হেফাজতে থাকবে।

অত্র অ্যাসোসিয়েশনের একটি সিলমোহরও থাকবে, যা কার্যনির্বাহী কমিটির সাধারন সম্পাদককের হেফাজতে থাকবে। প্রত্যেক সদস্যকে কার্যনির্বাহী কমিটি কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী একটি সদস্য কার্ড বা পরিচয়পত্র (ছবিসহ) দেওয়া হবেI ছবি ছাড়া কোনো সদস্যকে পরিচয়পত্র প্রদান করা যাবে নাI (অবশ্যই ছবি দেওয়ার বা তোলার দায়িত্ব সদস্যদের উপর বর্তাবে)। পরিচয়পত্র প্রদানের কার্যক্রম সাধারন সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে থাকবে I

ধারা ৫: প্রতিষ্ঠাকাল
কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” প্রতিষ্ঠাকল্পে প্রথম যেদিন (২০২১ সালের (মাস ও তারিখ দিতে হবে) এবং তাঁর পরে ও কয়েকটি সভায় কালীগঞ্জ রাজা রাজেন্দ্র নারায়ণ (আর.আর.এন) পাইলট গভর্নমেন্ট হাই স্কুলের কয়েকজন প্রাক্তন ছাত্র (তাঁরাই হলো প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য) zoom সম্মেলনের মারফত অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন প্রতিষ্ঠা করার জন্য সুনির্দিষ্ট সিদ্ধান্ত ও বাস্তবিক পদক্ষেপ নিয়েছিল সেই ঐতিহাসিক দিনের তারিখকে প্রতিষ্ঠাকাল হিসেবে গণ্য করা হবে। (কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন প্রতিষ্ঠাকল্পে যে কয়জন প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য হিসেবে উদ্যোগ ও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিল তাঁদের নাম এই খসড়া গঠনতন্ত্র ও বিধিমালার শেষ অংশে সংযুক্তিকারে দেওয়া হলো)I

ধারা ৬ : অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য
কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” নামে পরিচিত প্রতিষ্ঠানটি হলো এই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্রদের মধ্যে সংযোগ গড়ে তোলা এবং স্কুলের মঙ্গলার্থে ভাল কিছু করার অভিপ্রায় লালন করা। এই পরিপ্রেক্ষিতে “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” নামক সামাজিক ও দাতব্য প্রতিষ্ঠানটির।

লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো নিম্নরূপ:
ক) কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” ঐতিহ্যবাহী কালীগঞ্জ রাজা রাজেন্দ্র নারায়ণ পাইলট গভর্নমেন্ট হাই স্কুলের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের দ্বারা গঠিত সম্পূর্ণ দাতব্য ও সামাজিক সংগঠন বিধায় এই অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর মুখ্য উদ্দেশ্য হলো সকল অ্যালামনাইয়ের মধ্যে ভাতৃত্ববন্ধন সুদৃঢ়, আন্তঃ যোগাযোগ ও পারস্পারিক সহযোগিতা বৃদ্ধি করা।

খ) “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন”-এর অন্যতম কাজ হলো এই বিদ্যাপিঠের প্রাক্তন ছাত্র এবং এই বিদ্যাপিঠের মঙ্গলাকাংখীদেরকে একটি সাধারণ প্ল্যাটফর্মে একত্রিত করাI

গ) কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্রসম্প্রদায়ের মধ্যে ‘স্ব-সহায়তার’ মাধ্যমে সদস্যদের ব্যক্তিগত ও পেশাগত উন্নয়নে সহায়তা এবং কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুলের জন্য একটি টেকসই সমর্থন সিস্টেম তৈরি করাI

ঘ) কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুলের বর্তমান এবং প্রাক্তন ছাত্রদের জন্য একটি সহযোগিতার মাধ্যম হিসাবে কাজ করা।

.উ) এছাড়া শিক্ষা ও শিক্ষাসহায়ক বিবিধ কর্মকান্ডে কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুলের শিক্ষকমন্ডলী ও প্রশাসনকে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করতে সচেষ্ট থাকবে।

অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর সুনির্দিষ্ট উদ্দেশ্যগুলো হবে নিম্নরূপ:

*গবেষণা ও যোগাযোগের মাধ্যমে কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ইতিহাস ও ঐতিহ্য পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণ করা।

*বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্রদের শিক্ষাগত এবং নৈতিক মান গড়ে তোলা এবং কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ইতিহাস ও ঐতিহ্য সম্পর্কে জানার জন্য উৎসাহিত করা।

* প্রাক্তন ছাত্রদের মধ্যে ঐক্য বৃদ্ধি, শক্তিশালী আন্তঃসম্পর্ক, এবং বন্ধুত্ব বৃদ্ধি।

*যুবক সম্প্রদায়কে অধ্যয়ন সম্পর্কিত সমস্যাগুলি দূর করতে সহায়তা করা।

* স্কুলের উন্নয়নে আগ্রহ বজায় রাখা এবং ছাত্রসম্প্রদায়ের সেবা করা।

*বিদ্যালয়ের যোগ্য শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তি এবং পুরস্কার প্রতিষ্ঠা করা।

*বর্তমান এবং প্রাক্তনদের জন্য স্কুলে শিক্ষকতার শ্রেষ্ঠত্ব বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন পুরস্কার ও স্মারক প্রতিষ্ঠা করা।

*গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশর আইন দ্বারা অনুমোদিত যে কোনও সামাজিক এবং সেবামূলক সমস্ত কিছু করা।

*বিভিন্ন প্রাসঙ্গিক এবং দরকারী শিক্ষা কার্যক্রম তৈরি এবং বজায় রাখার জন্য একটি শিক্ষা ও শিক্ষার্থী-বান্ধব অরাজনৈতিক ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ করা এবং এই উদ্দেশ্যসাধনে খেলাধুলা, বিতর্ক, আবৃতি, কলাবিদ্যা, সংগীত ও প্রবন্ধ প্রতিযোগিতার আয়োজন করাI এছাড়া স্কুল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় বিভিন্ন সময় পাবলিক বক্তৃতার ব্যবস্থাসহ অতিথি বক্তাদের দ্বারা সেমিনার এবং প্রদর্শনী.অনুষ্ঠান করাI

*স্কুলের ছাত্রদের মঙ্গলের জন্ন্য বিভিন্ন তহবিল সংগ্রহকে উৎসাহিত করা যা থেকে “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” ছাত্র বৃত্তি এবং বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষকদের জন্য “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” পুরষ্কার প্রচলন করার জন্য কার্যক্রম গ্রহণ করাI

*”কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” স্কুলের মেধাবী ছাত্রদেরকে উৎসাহিত করার মানসে বিভিন্ন পরীক্ষায় তাদের কৃতকার্যতার জন্য সংবর্ধনা জ্ঞাপন অনুষ্ঠানের আয়জন করাI

*স্কুলের আর্থিকভাবে অসচ্ছল অথচ মেধাবী ছাত্রদের জন্য “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” অনুদান প্রদান করাI

*স্কুলের বর্তমান বা প্রাক্তন শিক্ষক ও ছাত্রদের মধ্যে আর্থিকভাবে অসচ্ছল কেউ অপ্রত্যাশিত কোন প্রকট রোগে আক্রান্ত হলে বা দুর্ঘটনার কবলে পড়লে “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন”–এর পক্ষ থেকে এককালীন নগদ অনুদান প্রদান করাI

*ছাত্রদের কর্মক্ষমতা বৃদ্বির পথপ্রদর্শক এবং স্কুলের ইতিহাসের ঐতিহ্য, রেফারেন্স সহ স্মৃতিচিহ্নের রক্ষক হিসাবে কাজ করা।

*ইতিহাস এবং স্কুলের ছাত্রদের কৃতিত্বের উপর অনলাইন এবং হার্ড কপি উভয় প্রবন্ধ, বই এবং স্যুভেনির প্রকাশ করা।

ধারা ৭: সদস্যপদ

“কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” (প্রাক্তন ছাত্র সমিতি)-এর সদস্যপদে ৪ (চার) ধরণের বিভক্তি থাকবে: ক) সাধারণ সদস্য; খ) সম্মানিত বা সাম্মানিক (অনারারি) সদস্য; গ) Life Member বা জীবনসদস্য এবং ঘ) ডোনার (Donor) বা দাতা সদস্য I

ক) সাধারণ সদস্য: সাধারণ সদস্য পদ কেবল মাত্র কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুলের অ্যালামনাইদের জন্য অর্থাৎ এই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্রদের জন্য নির্ধারিত থাকবেI অ্যালামনাই এসোসিয়েশন অত্র স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র বা অ্যালামনাই নিম্নরূপে সংজ্ঞায়িত করছে: কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে যাঁরা ম্যাট্রিকুলেশন পরীক্ষা বা মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষা পাশ করেছে অথবা যাঁরা “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ন্যূনতম এক বৎসর পড়েছে শুধু তাঁরাই অত্র স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র বলে বিবেচিত হবে I অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের বিধিমালা মেনে ও নির্ধারিত বার্ষিক চাঁদা আদায়ে কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের যে কোন প্রাক্তন ছাত্র এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য হতে পারবে I বিশ্বের যে কোনো দেশের স্থায়ী বাসিন্দা বা বিদেশী নাগরিকত্ত্ব প্রাপ্ত বাসিন্দা হলেও অত্র স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের নিয়মিত সাধারণ সদস্য হতে পারবেI অর্থাৎ কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের যে কোন প্রাক্তন ছাত্রকে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য হতে হলে তার বাংলাদেশি পাসপোর্ট বা জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার দেওয়ার প্রয়োজন হবে নাI কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের যে কোন প্রাক্তন ছাত্রকে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য হওয়ার এই উদার নিয়ম-নীতি অন্য সব ক্যাটাগরীর সদস্য (সম্মানিত সদস্য, জীবনসদস্য ও দাতা সদস্য) গ্রহণের বা সংযুক্তির ব্যাপারেও প্রযোজ্য হবেI তবে কাউকে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য হওয়ার জন্য যথেষ্ট তথ্য প্রদানের প্রয়োজন হবে যা থেকে সহজেই প্রতীয়মান হয় যে তিনি সত্যিকার অর্থেই কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন (অত্র স্কুলে নূন্যতম এক বছরের মত পড়েছিলেন)I নির্ধারিত বাৎসরিক চাঁদা ছাড়াও সাধারণ সদস্যরা যে কোনো সময় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যক্রম পরিচলনা করার জন্য বিশেষ অনুদান প্রদান করতে পারবে I কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই এসোসিয়েশন-এর নিয়মিত সাধারণ সদস্যরা ভোট প্রদানের সুবিধাসহ সাধারণ পরিষদ গঠনে ও এক্সেকিউটিভ (নির্বাহী) কমিটি নির্বাচনে বা গঠনে অংশ গ্রহণ করতে পারবেI

খ) সম্মানিত বা সাম্মানিক (অনারারি) সদস্য: এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি প্রয়োজনবোধে সেসব নন-অ্যালামনাই, যাঁরা অ্যাসোসিয়েশনের মর্যাদা ও স্বার্থের উন্নয়নে/পরিবর্ধনে সহায়ক স্বনামধন্য ব্যক্তিদের নির্ধারিত বার্ষিক চাঁদা বা এককালীন অনুদান আদায়ে “সাম্মানিক সদস্যপদ” প্রদান করতে পারবে। অর্থাৎকার্যনির্বাহী কমিটি প্রয়োজনবোধে সেসব নন-অ্যালামনাই, যাঁরা অ্যাসোসিয়েশনের মর্যাদা ও স্বার্থের উন্নয়নে/পরিবর্ধনে সহায়ক, স্বনামধন্য ব্যক্তিদের ‘সাম্মানিক সদস্য’পদ প্রদান করতে পারবে । অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির ভোটে যে কোনো ব্যক্তি যিনি কালীগঞ্জ আরআরএন পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র নন, কিন্তু অত্র উচ্চ বিদ্যালয়ের শুভাকাঙ্খী, ও স্কুলের প্রাক্তন ও বর্তমান ছাত্র সম্প্রদায়ের জন্য বিবিধ অবদান রেখেছেন বা রাখছেন তাকে “সম্মানসূচক সদস্য” করা যেতে পারে I বিশেষ করে কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রদের পিতা-মাতা, স্ত্রী এবং ছেলে-মেয়েরা (নন-অ্যালামনাই) কিংবা সংশ্লিষ্ট সম্মানিত সদস্যের স্ত্রী/স্বামী অথবা সন্তানরা নির্ধারিত সদস্য ফি পরিশোধে অ্যালামনাই ,অ্যাসোসিয়েশনের সম্মানিত সদস্য হতে পারবেন । কালীগঞ্জ আরআরএন পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষকমন্ডলীর সদস্যরাও অ্যালামনাই, অ্যাসোসিয়েশনের সম্মানিত সদস্য হতে পারবেন এবং সম্মানিত বা সাম্মানিক সদস্য হওয়ার জন্য তাঁরাও নির্ধারিত সদস্য ফি প্রদান করবেন I সম্মানিত বা সাম্মানিক (অনারারি) সদস্যরা নির্ধারিত নিঃশর্ত অনুদান প্রদান করে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের জীবনসদস্য হতে পারবেন I নির্ধারিত বাৎসরিক চাঁদা ছাড়াও সম্মানিত বা সাম্মানিক সদস্যরা যে কোনো সময় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যক্রম পরিচলনা করার জন্য বিশেষ অনুদান প্রদান করতে পারবে I সম্মানিত বা সাম্মানিক (অনারারি) সদস্যরা যাঁর যাঁর সাধ্য ও ইচ্ছা অনুযাযী অ্যালামনাই, অ্যাসোসিয়েশনের বিভিন্ন ধরণের কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করবে এবং তাঁরা এই দাতব্য প্রতিষ্ঠানের উপদেষ্টা বোর্ডের সদস্যও থাকতে পারবেন I তবে কোনো সাম্মানিক সদস্য আলাইমনাই ‘অ্যাসোসিয়েশনের’ কোনো নির্বাচনে অংশগ্রহণ বা নির্বাচন সংক্রান্ত কোনো কর্মকাণ্ডে যোগ দিতে পারবেন না।

গ) জীবনসদস্য (Life Member): সব ধরণের সদস্যরাই (অর্থাৎ সাধারণ সদস্য, সাম্মানিক সদস্য ও দাতা সদস্য) এককালীন চাঁদা বা এককালীন অনুদান অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের তহবিলে নিঃশর্ত ও স্বেচ্ছাপ্রণোদিত হয়ে জমা দিয়ে জীবনসদস্য হতে পারবেন এবং তাঁরাই জীবনসদস্যগণ স্থায়ী সদস্য হিসেবে বিবেচিত হবেন এবং তাঁদেরকে বাৎসরিক আর কোনো চাঁদা দিতে হবে না। তবে স্বেচ্ছাপ্রনোদিত হয়ে একজন জীবনসদস্য আলাইমনাই এসোসিয়েশনের যে কোন কার্যপরিক্রমায় অনুদান প্রদান করতে পারবে I যেসব জীবন সদস্যরা কালীগঞ্জ আরআরএন পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র শুধুমাত্র তাঁদেরই অ্যাসোসিয়েশনের ‘সাধারণ সদস্য” পদ বহাল থাকবে এবং ঐসব প্রাক্তন ছাত্ররা অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচনে ভোট প্রদান করতে পারবেন এবং তাঁরা নির্বাচনেও অংশগ্রহণ করতে পারবেনI

ঘ) ডোনার মেম্বার বা দাতা সদস্য: কালীগঞ্জ আরআরএন পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছ থেকে অ্যালামনাই এসোসিয়েশন অনুদান বা আর্থিক প্রণোদনা গ্রহণ করতে পারবে এবং স্পনসরশিপ চাইতে পারবে।

উল্লেখযোগ্য আর্থিক অনুদানের বা আর্থিক প্রণোদনা স্বীকৃতিস্বরূপ বা স্পনসরশিপের পরিমাণের উপর নির্ভর করে সম্মানিত কোনো ব্যক্তিকে যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে ‘দাতা মেম্বার’ হিসেবে গ্রহণ করা যেতে পারে I যে কোন সম্মানিত বা সাম্মানিক (অনারারি) সদস্য বা সাধারণ সদস্য একটি নির্দিষ্ট অনুদান প্রদান করে আলাইমনাই এসোসিয়েশনের “ডোনার বা দাতা সদস্য” হতে পারবেনI দাতা সদস্যরা (যাঁরা নন-এলামনাই) আলাইমনাই অ্যাসোসিয়েশনের “সম্মানিত বা সাম্মানিক (অনারারি)” সদস্য হিসেবে বিবেচিত হবে I এই কথা পরিষ্কার করে বলা প্রয়োজন যে নন-এলামনাই (যারা অত্র স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র নন) অনুদান প্রদান করে বা আর্থিক প্রণোদনা দানে প্রাপ্ত ‘দাতা মেম্বাররা’ আলাইমনাই অ্যাসোসিয়েশনের’ কোনো নির্বাচনে অংশ গ্রহণ কিংবা ভোট প্রদান করতে পারবেন না। তবে কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রদের (এলামনাই) মধ্যে যাঁরা মোটা দাগের অনুদান বা আর্থিক প্রণোদনা দিয়ে ‘দাতা সদস্য’ হিসেবে স্বীকৃতি পেতে আগ্রহী তাঁদের আলাইমনাই অ্যাসোসিয়েশনের ‘সাধারণ সদস্য’ পদ অক্ষুন্ন থাকবে এবং তাঁরা নির্বাহী কমিটি নির্বাচনে অংশগ্রহণ ও যে কোনো কার্যক্রমে ভোট প্রদান করতে পারবেন I এছাড়া ডোনার বা দাতা সদস্যদের মধ্যে স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র হিসেবে কেউ যদি ‘এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের’ ‘জীবন সদস্য’ হয়ে থাকেন বা হতে চান তাহলে তিনিও বিধি মোতাবেক নির্বাচনে অংশগ্রহণ এবং ভোট প্রদান করতে পারবেন।

ধারা ৮: বার্ষিক সদস্যচাঁদা ও বিবিধ অনুদান বা আর্থিক প্রণোদনা
(ক) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি সব ধরণের সদস্যদের জন্য বার্ষিক মেম্বারশিপ (সামান্য ও যৌক্তিক পরিমাণ) চাঁদা বা অনুদান বা আর্থিক প্রণোদনা নির্ধারণ করবেI

বার্ষিক চাঁদা অগ্রিম বা যথাশীগ্র পরিশোধ করার জন্য উপর্যুপরি তাগাদা না দিয়ে অতি বিনয়ের সঙ্গে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যদের এ ব্যাপারে স্মরণ করিয়ে দিতে হবে বা তাঁদেরকে বিভিন্নভাবে বার্ষিক চাঁদা আদায়ে উৎসাহিত করতে হবেI

(খ) সদস্য চাঁদা, সদস্য অনুদান ও শুভাকাঙ্খীদের আর্থিক প্রণোদনাই অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যক্রম পরিচলনা করার খরচপত্র নির্বাহ করার জন্য আয়ের প্রধান উৎস্যI তাই নির্ধারিত বাৎসরিক চাঁদা ও অনুদান ছাড়াও সবধরণের সদস্যরা যে কোনো সময় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যাবলী সুচারুভাবে সম্পন্ন করার জন্য বিশেষ অনুদান প্রদান করতে পারবে I এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশন শুভাকাঙ্খী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক নিঃশর্ত অনুদান/গ্রহণযোগ্য শর্তে প্রদত্ত অর্থদান গ্রহণ করতে পারবেI

(গ) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি সদস্যদের নিকট থেকে সংগৃহীত চাঁদা বা অনুদান ছাড়াও বার্ষিক অনুষ্ঠান, স্মরণিকা বা সংকলন প্রকাশ করার জন্য অনুদান ও বিজ্ঞাপন সংগ্রহ করতে পারবেI তবে বিভিন্নধরনের সদস্যদের কাছ থেকে চাঁদা ও অনুদান গ্রহণ এবং স্মরণিকা বা সংকলন প্রকাশ করার জন্য বিজ্ঞাপন সংগ্রহ শুধুমাত্র কার্যনির্বাহী কমিটির অনুমোদনপ্রাপ্ত সদস্যরাই করতে পারবেনI

(ঘ) অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন নিম্নেবর্ণিত সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান থেকে অনুদান গ্রহণ করার সুযোগ পাবে: সরকারি ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রদত্ত অনুদান, দেশি-বিদেশের দাতব্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান হতে প্রাপ্ত অনুদান, স্কুল কর্তৃপক্ষ ও ছাত্রদের দেওয়া অনুদান, অ্যাসোসিয়েশনের শাখাসমূহ থেকে প্রাপ্ত অর্থ, এবং বিবিধ বৈধ ও বিধিসম্মত আয় (যেমন ব্যাংকে রাখা ফিক্সড ডিপোজিট ও সঞ্চয়পত্র থেকে আয় ও বিভিন্ন স্মরণিকা ও প্রকশনা বিক্রয়লব্ধ আয়)I

(ঙ) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির অনুমোদনক্রমে নির্বাহী কমিটির দায়িত্বপ্রাপ্ত কোনো সদস্য অ্যাসোসিয়েশনের উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্য বিভিন্ন সংস্থা/সংগঠনের কাছ থেকে অনুদান আহ্বান করতে বা গ্রহণ করতে পারবেন বা তহবিল গঠন করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ বা আর্থিক সাহায্য ও সহযোগিতা গ্রহণ করতে পারবেনI

(চ) “অনুদান” প্রদান সদস্যদের বা শুভাকাঙ্খীদের জন্য অবশ্যই স্বেচ্ছাপ্রণোদিত হতে হবে। এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির অনুমোদনক্রমে নির্বাহী কমিটি কোনভাবেই কেবলমাত্র “অর্থমূল্য” নির্ধারণ করে ‘নির্বাহী কমিটির কোনো পদের জন্য যোগ্য ব্যক্তি’ এবং কোনো যোগ্যতা নিরূপক বিধি সংযুক্ত করতে পারবে না। এমনকি নির্বাহী কমিটির কোনো পদে থাকার যোগ্যতা হিসেবে কোনো প্রকার বাধ্যতামূলক চাঁদা ও অনুদান গ্রহণ ধার্য করে বিধি প্রণয়ন করতে পারবে না।

(ছ) ঐতিহ্যবাহী কালীগঞ্জ রাজা রাজেন্দ্র নারায়ণ পাইলট সরকারী উচ্চবিদ্যালয় এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের নাম ভাঙিয়ে বা ভুয়া পরিচয়ে এখতিয়ারবহির্ভূত বা বিধিবহির্ভূত কাউকে চাঁদাবাজি, টাউটারি ও জালিয়াতি করতে দেয়া হবেনাI তাই স্বচ্ছতা নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে একথা পরিষ্কার করে বলা হলো যে, এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির অনুমোদন ব্যাতিত কোন সদস্য নিজ উদ্যোগে বা গোপনে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের নামে বা পক্ষে কারুর কাছ থেকে বা কোন সংস্থা বা সংগঠন থেকে কোনোপ্রকার চাঁদা, অনুদান ও স্পনসরশিপ সংগ্রহ বা গ্রহণ করতে পারবে নাI

ধারা ৯: অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের তহবিল সংগ্রহ ও পরিচালনা:

(ক) “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন”-এর নামে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি মনোনীত যে কোনো বাণিজ্যিক বা ব্যাংকসমূহে এক বা একাধিক ব্যাংক একাউন্ট থাকতে পারবে। কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর ব্যাংক একাউন্ট, বা একাউন্টসমুহ থেকে নির্বাহী কমিটির সিদ্ধান্তের মাধ্যমে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষের মধ্যে যে কোনো দুই জনের যুগ্ম স্বাক্ষরে লেনদেন সম্পন্ন হবে।

(খ) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কাজে ১০,০০০/- (দশ হাজার টাকার) ঊর্ধ্বে ব্যয়ের জন্য এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির অনুমোদনের প্রয়োজন হবে।

(গ) তহবিল: এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের তহবিলসহ সকল সম্পত্তি অ্যাসোসিয়েশনের নামে অর্জিত, স্বীকৃত ও পরিচালিত হবে এবং তাহা অ্যাসোসিয়েশনের নিকট ন্যাস্ত থাকবে। নির্দিষ্ট উদ্দেশ্যে অর্জিত অর্থ বিশেষ তহবিলে জমা রাখতে হবে। বিভিন্ন ব্যক্তি, সংস্থা, সদস্যদের চাঁদা এবং সরকার হতে অনুদান নিয়ে অ্যাসোসিয়েশনের গঠিত (ব্যাংকসমূহে অথবা ডাকঘর সঞ্চয় প্রকল্পে, প্রতিরক্ষা সঞ্চয়পত্র কিংবা অধিকতর লাভজনক কিন্তু নিরাপদ দীর্ঘমেয়াধী ফিক্সড একাউন্টে) শুধুমাত্র এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের নামে জমা রাখা যাবে I কোনো অজুহাতে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কোনোপ্রকার সঞ্চয় বা তহবিল নির্বাহী কমিটির কোন কর্মকর্তা বা সদস্য নিজ নামে রাখতে পারবে না এবং কোন সদস্য বা কর্মকর্তা এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের তহবিল থেকে ধারকর্জ নিতে বা দিতে পারবে নাI

ঘ) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের তহবিল সংগ্রহ ও পরিচালনার ব্যাপারে নির্বাচিত ট্রেজারার বা কোষাধ্যক্ষের অগ্রণী ভূমিকা থাকবে কারণ আর্থিক বিষয়ের ব্যবস্থাপনায় সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা, বৈধতা, জবাবদিহিতা এবং সততা নিশ্চিত করার দায়িত্ব হলো কোষাধ্যক্ষের I

(উ) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক সাধারণ সভার পূর্বেই কার্যনির্বাহী কমিটির উদ্যোগে অ্যাসোসিয়েশনের আয়-ব্যয়ের হিসাব লাইসেন্স-প্রাপ্ত চার্টার একাউন্টিং ফার্ম কর্তৃক নিরীক্ষার (অডিট) ব্যবস্থা করতে হবে এবং অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক সভায় নিরীক্ষাকৃত প্রতিবেদনটি (অডিট রিপোর্ট) অনুমোদিত হতে হবে।

ধারা ১০: এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ‘সাধারণ সদস্য কাউন্সিল’ বা ‘সাধারণ সদস্য পর্ষদের’ গঠন, ক্ষমতা ও দায়িত্ব:
(ক) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ‘সা’ধারণ সদস্য পর্ষদ” সকল এল্যামনাই সদস্যের (শুধুমাত্র কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র) সমন্বয়ে গঠিত হবে।

(খ) সাধারণ সদস্য পর্ষদ সর্বোচ্চ ক্ষমতার অধিকারী হবে এবং এর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে বিবেচিত হবে।

(গ) সাধারণ সদস্য পর্ষদ এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি বা নির্বাহী পর্ষদ গঠন/নির্বাচন করবে।

(ঘ) সাধারণ সদস্য পর্ষদ দ্বারা নির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটি এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সর্বপ্রকার কার্যক্রম অতি দক্ষতা ও স্বচ্ছতার সঙ্গে পরিচালনা করবে I তবে কার্যনির্বাহী কমিটি সাধারণ সদস্য পর্ষদের কাছে জবাবদিহি থাকবেI প্রয়োজনবোধে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য পর্ষদ বিধিমোতাবেক কার্যনির্বাহী কমিটিকে জবাবদিহী করতে বাধ্য করতে পারে এবং এমনকি বিধিসিদ্বভাবে কার্যনির্বাহী কমিটির উপর অনাস্থা প্রস্তাব আনতে পারবেI

(উ) কোরাম: সাধারণ পর্ষদের সভা “বার্ষিক সাধারণ সভা” নামে অভিহিত হবে এবং অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য ফি বা চাঁদা পরিশোধকৃত তালিকাভুক্ত সদস্যদের এক তৃতীয়াংশ (১/৩) উপস্থিতিতে সভায় কোরাম হবে। অর্থাৎ সাধারণ সদস্য পর্ষদের সভা করার জন্য সর্বমোট সাধারণ সদস্যদের মধ্যে নূন্যতম ৩৩ পার্সেন্ট সদস্যের উপস্থিতিতে কোরাম পূরণ হল বলে বিবেচিত হবেI

(চ) সাধারণ সদস্য পর্ষদ কর্তৃক আহুত সভায় কোরাম পূরণ সাপেক্ষে গঠনতন্ত্রের অনুমোদন, সংশোধন ও পরিবর্তন করতে পারবে। সংবিধানের সংশোধনী এবং বিধিমালা সংশোধনের জন্য সভায় উপস্থিত সদস্যদের মধ্যে ৬০% অনুকূল ভোটের প্রয়োজন হবে। নিয়মিত সদস্যরা ব্যক্তিগতভাবে বা জুমের মাধ্যমে বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইসের মাধ্যমে সাধারণ সদস্য পর্ষদ কর্তৃক আহুত সভায় উপস্থিত থাকার সুযোগ থাকতে হবেI

(ছ) নির্বাচন কমিশন: সাধারণ সদস্য পর্ষদ হতে একজন প্রধান নির্বাচকসহ সর্বোচ্চ ৫জন সদস্যবিশিষ্ট নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে। নির্বাচন কমিশন: সাধারণ সদস্য পর্ষদ হতে একজন প্রধান নির্বাচকসহ সর্বোচ্চ ৫ জন সদস্যবিশিষ্ট নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে। বাস্তবতার পরিপ্রেক্ষিতে প্রথমবার ২১-সদস্য বিশিষ্ট “প্রতিষ্ঠাতা সদস্য পরিষদের” সদস্যরা সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামতের ভিত্তিতেই নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে। কিন্তু দুই বা তিন বৎসর পর “সদ্য সাবেক কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যদের” সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামতের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে। নির্বাচন কমিশন অথবা কমিশনের কোন সদস্য নির্বাচন সংক্রান্ত নিরপেক্ষতা ক্ষুণ করলে সেক্ষেত্রে সাধারণ সদস্য পর্ষদ প্রমাণ সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

(জ) নির্বাচন প্রক্রিয়া: সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষ সহ ২১-সদস্য বিশিষ্ট অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যদের সব পদের জন্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন সম্মেলনে উপস্থিত (ইলেকট্রনিক উপায়ে উপস্থিত হলেও তাঁদের ভোট কাউন্ট করা হবে) সাধারণ সদস্যরাই ভোট দিতে পারবেন। তবে বাস্তব পরিস্থিতিতে প্রথমবারের মত ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারী মাসের মধ্যেই জুম্ মিটিং মারফত বা ই-মেইল মারফত ২১-সদস্য বিশিষ্ট অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি সদস্যদের সব পদের জন্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে শুধুমাত্র ঐসব সাধারণ সদস্যরাই ভোট দিতে পারবেন যারা বাৎসরিক চাঁদা আদায় করে অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের সদস্য হয়েছেনI

ধারা ১১: এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য পর্ষদ সভা অনুষ্ঠান
(ক) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য পর্ষদ সভা বছরে নূন্যতম একবার অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য ন্যূনতম ৩০ (ত্রিশ) দিন পূর্বে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সকল সদস্যকে জানাতে হবে। তবে জরুরি প্রয়োজনে একের অধিক জরুরি সভা আহবান করা যাবে এবং ৭ (সাত) দিন পূর্বে লিখিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই জরুরি সাধারণ সভা করা যাবে।

(খ) স্বাভাবিক নিয়মে বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত না হলে বা কোনো প্রকার অনাস্থা প্রস্তাব বা সংবিধান সংশোধন বা পরিবর্তনের প্রয়োজন দেখা বা গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত বিবেচনার্থে বা জরুরি প্রয়োজনে কমপক্ষে দুই তৃতীয়াংশ সদস্যের অনুরোধক্রমে সভাপতি জরুরি সাধারণ সভা ডাকতে পারবেন।

(গ) সাধারণ সভার দিন বা অন্য কোনো দিন সদস্যদের সমন্বয়ে ও পরিবার পরিজনসহ পুনর্মিলনীর আয়োজন করা যাবে।

(ঘ) সাধারণ সম্পাদক সকল সভার বিজ্ঞপ্তি প্রচার করবেন। তবে যে কোনো জরুরি সভা বা সভাপতির পরামর্শক্রমে সাধারণ সম্পাদক কোন সভা ডাকতে ব্যর্থ হলে সভাপতি জরুরি সভা ডাকতে পারবেন।

(ঙ) কোরাম: সাধারণ পর্ষদের সভা “বার্ষিক সাধারণ সভা” নামে অভিহিত হবে এবং অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য ফি বা চাঁদা পরিশোধকৃত তালিকাভুক্ত সদস্যদের এক তৃতীয়াংশ (১/৩) উপস্থিতিতে সভায় কোরাম হবে। অর্থাৎ সাধারণ সদস্য পর্ষদের সভা করার জন্য সর্বমোট সাধারণ সদস্যদের মধ্যে নূন্যতম ৩৩ পার্সেন্ট সদস্যের উপস্থিতিতে কোরাম পূরণ হল বলে বিবেচিত হবেI (কার্যনির্বাহী কমিটির সভায়ও সদস্যদের এক তৃতীয়াংশ (১/৩) উপস্থিতি কোরাম বলে বিবেচিত হবে)I কোন কারণে কোন সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে কোরাম যথেষ্ট নয় বলে বিবেচিত হলে সাধারণ পর্ষদ বা নির্বাহী পর্ষদের সেই আহুত সভা মুলতবি বলে গণ্য হবেI

(চ) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য পর্ষদে কোনো অফিসিয়াল মিটিংএর ভোটদান পদ্বতি সকল সদস্যের কাছে হবে স্বচ্ছ ও অবাধ এবং ভোট প্রদানের মূলনীতি হবে “এক ব্যক্তি, একটি ভোট”। ভোটিং পদ্বতি ম্যানুয়ালি বা ব্যক্তিগতভাবে হতে পারে তবে ইলেকট্রনিক ভোটিং এর বিকল্প থাকতে হবে। বিশেষ করে, যদি সভাগুলি ব্যক্তিগতভাবে হতে না পারে, তাহলে ভোটদান অবশ্যই ইলেকট্রনিকভাবে হতে হবে।

(ছ) যেখানে বা যখন ভোটাভোটির প্রয়োজন হবে, সভায় উপস্থিত “সংখ্যাগরিষ্ঠ” ভোট দ্বারা চূড়ান্ত সিদ্বান্ত গ্রহণ করা হবেI নিঃসন্দেহে সাধারণ পর্ষদের বা কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সাধারণ সংখ্যাধিক্য মতকে সিদ্ধান্ত গ্রহণের পদ্ধতি হিসেবে গণ্য করা হবেI তবে স্মরণ রাখতে হবে যে সকল প্রকার সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে সমঝোতাকে বা ঐকমত্যকে প্রাধান্য দিতে হবে। তবে কার্যনির্বাহী কমিটির কোন সভায় গঠনতন্ত্র সংশোধন বা বিলুপ্তির কোন প্রস্তাব বিবেচনা করা যাবে না।

(জ) সাধারণ পর্ষদের সভায় অ্যাসোসিয়েশনের আয়-ব্যয়ের হিসাব নিকাশ ও বার্ষিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা ও অনুমোদন করা হবেI

ধারা ১২: এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি

(ক) কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য পর্ষদ অবাধ, সুষ্ঠ ও গণতান্রিকভাবে একটি “কার্যনির্বাহী কমিটি” বা “এক্সেকিউটিভ কমিটি” নির্বাচিত করবে এবং এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যক্রম এই কার্যনির্বাহী কমিটি” দ্বারা অতি দক্ষতা ও স্বচ্ছতার সঙ্গে বাস্তবায়িত ও পরিচালিত হবে I

(খ) এই কার্যনির্বাহী কমিটি হবে একটি ২১-সদস্যবিশিষ্ট কেবিনেট বা কার্যনির্বাহী কমিটি” এবং এর কার্যকালের মেয়াদ হবে ৩ বৎসর I নির্বাচনের দ্বারা কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করার পর যেদিন থেকে নুতন কার্যনির্বাহী কমিটি দায়িত্ব গ্রহণ করবে সেদিন থেকেই এর কার্যকালের মেয়াদ গণনা শুরু হবে I নুতন কার্যনির্বাহী কমিটি নির্বাচিত বলে ঘোষণা দেওয়ার পর অবশ্যই ১৫ দিনের মধ্যে যথাযথ ইনভেনটরি বিবরণসহ দায়িত্বভার প্রদান ও গ্রহণ করতে হবে।

(গ) কার্যনির্বাহী কমিটি গঠনের তারিখ থেকে নির্বাহী পর্ষদের মেয়াদ হবে তিন বছর। তবে হিসেব রাখার সুবিধার্থে সাধারণত এই সময়কাল খ্রিস্টীয় বর্ষপঞ্জী অনুযায়ী (জানুয়ারি-ডিসেম্বর) সম্পন্ন করা হবে । বিশেষ করে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সদস্য পর্ষদের বাৎসরিক সাধারণ সভা ও অন্যান্য বাৎসরিক অনুষ্ঠসনাদি প্রতিবছর ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হবে I

ঘ) অ্যাসোসিয়েশনের প্রথম কার্যনির্বাহী কমিটি ২১-সদস্যবিশিষ্ট হলেও প্রয়োজনবোধে কার্যনির্বাহী কমিটি সাধারণ সদস্যদের মধ্য থেকে সর্বোচ্চ ৩ (তিন) জনকে কো-অপ্ট অর্থাৎ সংযুক্ত করতে পারবে এবং কার্যনির্বাহি কমিটির মেয়াদ পর্যন্ত কার্যনির্বাহি কমিটিতে তাঁদের সদস্যপদ বহাল থাকবে।

উ) কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুলের অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য অর্থ ও শ্রম ব্যায় হবে এই কথা সর্বজনবিদিতI তবে কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা পদাধিকারবলে কোন পারিশ্রমিক, বেতন ও ভাতা দাবি করতে পারবেন না কারণ এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কাজকর্ম পরিচালনা বা ব্যবস্থপনা হবে স্বেচ্ছাপ্রদত্ত ((ভলান্টারী) শ্রম I

ধারা ১৩: এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠান (নির্বাহী পর্ষদ):
(ক) কার্যনির্বাহী কমিটির সভা সাধারণভাবে প্রতি বছর অন্যূন ৬টি (ছয়) অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য ন্যূনতম ৭ (সাত) দিনের লিখিত বিজ্ঞপ্তি দিতে হবে। অর্থাৎ প্রতি ২ মাসে নূন্যতম একটি করে কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হবেI প্রয়োজনবোধে কার্যনির্বাহী কমিটির অতিরিক্ত জরুরি সভাও ডাকা হবে। এমন কি প্রয়োজনবোধে কার্যনির্বাহী কমিটি যে কোনো সময বর্ধিত সভারও আয়োজন করতে পারবে। কার্যনির্বাহী কমিটির প্রতিটি মিটিং জুম্ বা অন্য কোন ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস মারফত অংশ গ্রহণ করার সুযোগ থাকেতে হবে I

(খ) কার্যনির্বাহী কমিটির জন্য এক তৃতীয়াংশ (১/৩) কমিটি সদস্যের উপস্থিতিতে সভায় কোরাম হবে। অর্থাৎ কার্যনির্বাহী কমিটির সভা করার জন্য নূন্যতম ৩৩ পার্সেন্ট কার্যনির্বাহী কমিটি সদস্যের উপস্থিতিতে কোরাম পূরণ হল বলে বিবেচিত হবে I

ধারা ১৪: অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির কাঠামো ও কর্মকর্তাদের দপ্তর বন্টন

এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ২১-সদস্যবিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটির কাঠামো কর্মকর্তাদের দপ্তর বন্টন হবে নিম্নরূপ:
(ক) *১ জন সভাপতি এবং *২ জন সহ-সভাপতি (যাঁর নাম ১ম থাকবে তিনি হলেন প্রথম সহ-সভাপতি এবং যাঁর নাম পরে থাকবে তিনি হবেন দ্বিতীয় সহ-সভাপতি)।

এছাড়া থাকবে *১ জন সাধারন সম্পাদক, *১ জন যুগ্ম-সম্পাদক, *১ জন কোষাধ্যক্ষ, *১ জন সাংগঠনিক সম্পাদক, *১ জন সহকারী সাংগঠনিক সম্পাদক, *১ জন দপ্তর সম্পাদক, *১ জন সহকারী দপ্তর সম্পাদক, *১ জন প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক; *১ জন সহকারী প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক, *১ জন প্রকাশনা ও সাহিত্য সম্পাদক, *১ জন সহকারী প্রকাশনা ও সাহিত্য সম্পাদক, *১ জন সাংস্কৃতিক ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক. *১ জন সহকারী সাংস্কৃতিক ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সম্পাদক. ১ জন ক্রীড়া সম্পাদক এবং প্রাক্তন ছাত্রদের মধ্য থেকে ৪ (চার) জন নির্বাচিত সদস্য নিয়ে এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি গঠিত হবে।

ঘ) এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি একজন কর্মকর্তা হিসাবে সদস্যরা একই সাথে একাধিক পদে কাজ করতে পারবেন না ।

ধারা ১৫: এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটি কর্মকর্তাদের সাধারণ কর্তৃত্ব ও এখতিয়ার
কালীগঞ্জের আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ‘সাধারণ সদস্য পর্ষদের’ দ্বারা নির্বাচিত ২১ সদস্যের কার্য নির্বাহী কমিটির কর্মকর্তাদের সাধারণ কর্তৃত্ব ও এখতিয়ার নিম্নরূপ হবে:

*সভাপতি:
এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির ‘সভাপতি’ কালীগঞ্জের আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (CEO)। সভাপতির ক্ষমতা এবং দায়িত্বগুলির মধ্যে নিম্নলিখিতগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে:

ক) কালীগঞ্জ আরআরএন পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন”-এর সভাপতি বা ২ জন সহ-সভাপতির মধ্যে যে কোন ১ জন অথবা কার্যনির্বাহী কমিটির. ৪ (চার) জন নির্বাচিত সদস্যদের মধ্যে যে কোন একজন অবশ্যই এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করতে পারবেনI এসব পদের অধিকারীদের মধ্যে কাউকে সভাপতিত্ব করার জন্য পাওয়া না গেলে কার্যনির্বাহী কমিটির. উপস্থিত সদস্যদের মতামত নিয়ে নির্বাহী কমিটির যে কাউকে সভাপতিত্ব করার জন্য অনুরোধ করা যাবেI তবে কোন অবস্থাতেই সভাপতির অনুপস্থিতিতে তাঁর কোন আত্মীয়স্বজন বা তাঁর কোন গুণগ্রাহী জোরপূর্বক বা খেয়াল-খুশিমতো কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করার আবদার বা কোন ধরণের মাতব্বরি করার সুযোগ পাবে নাI এইধরণের বিধিনিষেধ কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যসব সদস্যদের বেলায়ও প্রযোজ্য থাকবেI

(খ) “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন”এর সভাপতি সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষ থেকে সাধারণ সদস্য পর্ষদের বাৎসরিক সভায় প্রাক্তন ছাত্র সমিতির ক্রিয়াকলাপের উপর রিপোর্ট পেশ করবেন I তবে বাৎসরিক প্রতিবেদন তৈরী করার মূল দায়িত্ব হবে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন”এর সাধারণ সম্পাদকেরI

(গ) সভাপতি নির্দিষ্ট বা সমস্ত দায়িত্ব অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন” একজন বা উভয় ভাইস প্রেসিডেন্টকে অর্পণ করতে পারেন।

(ঘ) যদি কখনও প্রয়োজন হয় সভাপতি কার্যনির্বাহী পরিষদের সিদ্ধান্ত অনুসারে অ্যাডহক কমিটি গঠন করতে পারেন। সভাপতি এই জাতীয় অ্যাডহক কমিটির চেয়ারম্যান ও সদস্যদেরও নিয়োগ করতে পারেন।

(ঙ) সভাপতি বিদ্যালয়ের প্রশাসনের সাথে শিক্ষক, কর্মচারী ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের সঙ্গে নিয়মিত সহযোগিতার ভিত্তিতে একটি সক্রিয় এবং সৌহার্দ্যপূর্ণ কাজের সম্পর্ক লালন ও বজায় রাখার চেষ্টা করবেন।

(চ) সভাপতি প্রাক্তন ছাত্র সমিতির অভ্যন্তরে এবং বাইরে অন্যান্য সংস্থার সামনে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন প্রতিনিধিত্ব করতে পারবেনI

(ছ) সভাপতি ৩ (তিন) বছরের মেয়াদে নির্বাচিত হবেন এবং পরবর্তীতে পুনরায় নির্বাচিত হতে পারেন ৩ (তিন) বছরের মেয়াদে। তবে কোন ব্যক্তি পরপর ৬ বছরের বেশি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না । অর্থাৎ কেউ ২ মেয়াদের বেশী (সর্বমোট ৬ বৎসর) সভাপতি পদে থাকতে পারবেন নাI

(জ) অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক বরাবরে বা সমীপে লিখিত নোটিশ বা চিঠি দিয়ে দিয়ে যেকোনো সময় পদত্যাগ করতে পারেন।

* সহ-সভাপতি (১ম সহসভাপতি ও ২য় সহ-সভাপতি:
কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের “সাধারণ সদস্য পর্ষদ দ্বারা-এর ১ম সহ-সভাপতি ও ২য় সহ-সভাপতি উভয়েই নির্বাচিত হবে এবং তাদের উভয়েই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পূর্ণ সহযোগিতায় কাজ করবে। সহ-সভাপতির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব হল যে ক্রমাগত অনুপস্থিতিতে, অসুস্থতা বা অন্য যেকোনো অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতিতে বা সভাপতির পদত্যাগের কারণে ১ম সহ-সভাপতি, ‘সভাপতির’ দায়িত্ব গ্রহণ করবেন এবং এমন পরিস্থিতিতে দ্বিতীয় সহ-সভাপতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ১ম সহ-সভাপতি হিসেবে কাজ করবেন।

*সাধারণ সম্পাদক:
“কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের”-এর ‘সাধারণ সম্পাদক’ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ‘সাধারণ সাধারণ সদস্য পর্ষদ’ দ্বারা তিন বছরের মেয়াদে নির্বাচিত হবেন । সাধারণ সম্পাদক নিম্নলিখিত দায়িত্ব পালন করবেন:

(ক) কালীগঞ্জের আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক একটি টেকসই “অ্যালামনাই অফিস” এর বিকাশ এবং ব্যবস্থাপনা বজায় রাখবেন যা “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র সমিতির” স্নায়ুকেন্দ্র ও প্রাণকেন্দ্র হিসাবে কাজ করবে ।

(খ) সাধারণ সম্পাদক অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর সভাপতি বা তার মনোনীত ব্যক্তির সাথে পরামর্শ করে অ্যালামনাই কার্যনির্বাহী কমিটির সভার তারিখ, সময় এবং স্থান নির্ধারণ করবে এবং তিনি সভাগুলির আলোচ্য এজেন্ডা বা কার্যসূচি তৈরী করবেI এই ধরনের সভার কার্যবিবরণী (Minutes) প্রস্তুত ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব হবে সাধারণ সম্পাদকের। বার্ষিক প্রতিবেদন প্রস্তুত করার দায়িত্বও থাকবে সাধারণ সম্পাদকের হাতেI ,

(গ) কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর সাধারণ সম্পাদক কমিটির সভাপতি, সহ-সভাপতি, কোষাধ্যক্ষ এবং কমিটির অন্য সদসদের সঙ্গে পরামর্শ ও সমন্বয় করে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর দীর্ঘমেয়াদী এবং স্বল্পমেয়াদী লক্ষ্য তৈরি করবে I অর্থাৎ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন কি কি উদ্দেশ্য অর্জন করতে চায় সে সম্পর্কে সংকল্প এবং সেই লক্ষ্যগুলি অর্জনের উপায় বা পন্থা তৈরি করার কাজে সাধারণ সম্পাদক অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে I

একইসাথে, সাধারণ সম্পাদক একটি বার্ষিক ক্যালেন্ডার বা টাইমলাইন তৈরি করতে পারেন এবং স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের সাথে নিয়মিত এবং দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক উন্নীত করার জন্য প্রাক্তন ছাত্রদের একটি তালিকা প্রণয়ন করার প্রচেষ্টা চালাবে I

(ঘ) সাধারণ সম্পাদক স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের সাথে নিয়মিত এবং দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক উন্নীত করার জন্য প্রাক্তন ছাত্রদের একটি তালিকা প্রণয়ন করার প্রচেষ্টা চালাবে I সাধারণ সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে তৈরী প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের জীবনবৃত্তান্ত এবং ঠিকানাসহ ফাইল রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে অতি উত্তম কাজ (তবে এই আধুনিকযোগে কম্পিউটার ফাইল তৈরী করাই হবে ভাল কাজ) I

(ঙ) সাধারণ সম্পাদক স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র ও বিভিন্ন ক্যাটেগরির সদস্যদের কাছ থেকে বাৎসরিক চাঁদা, অনুদান ও প্রণোদনা গ্রহণ করতে পারবেI তিনি প্রাক্তন ছাত্রদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখার এবং শুভাকাঙ্খীদের সাথে সুসম্পর্ক লালনের গুরুত্ব সম্পর্কে অবহিত থাকবেন।

(চ) সাধারণ সম্পাদক একাধিক স্থানে বিশেষ করে ঢাকা শহরে “কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর চ্যাপ্টার বা শাখা প্রতিষ্ঠার করার জন্য উদ্যোগী হবেনI বিদেশে বিশেষ করে যুক্তরাজ্যে এবং উত্তর আমেরিকায় (কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্র) কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর চ্যাপ্টার বা শাখা প্রতিষ্ঠার করার জন্য তৎপর হবেনI এমন উদ্যোগ যে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর অনুদান সংগ্রহের কাজে অনেক সহায়ক হবে এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই I দেশে-বিদেশে অ্যালামনাই শাখা গঠিত হলে সাধারণ সম্পাদকই অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের একজন অনুঘটক হিসাবে কাজ করবেন। তিনিই হবেন কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র সমিতির বিভিন্ন শাখার সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম।

(ছ) সাধারণ সম্পাদক যৌথ পরিকল্পনার মারফত বিভিন্ন অনুষ্ঠান করার মূল দায়িত্বে থাকবেনI উদাহরণ স্বরূপ উল্লেখ করা যায়: প্রাক্তন ছাত্র পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান, বাৎসরিক ভোজসভা, স্কুলের ছাত্র-শিক্ষকদের জন্য অভ্যর্থনা কার্যক্রম, খেলাধুলা, এবং স্কুল প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপন (প্রতি বছর ১ লা জানুয়ারির কাছাকাছি সময়ে)I

(জ) সাধারণ সম্পাদক কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর জন্য একটি টেকসই প্রকাশনা এজেন্ডা তৈরিতে সক্রিয় থাকবেনI অন-লাইন, ওয়েবসাইট ও সোশ্যাল মিডিয়া মাধ্যম তৈরি করা সহ স্কুল সম্পর্কে বই-পুস্তক, ও স্যুভেনিরের প্রকাশনা এবং মাঝে মাঝে সংকলন প্রকাশ করা যাবে। সাধারণ সম্পাদক দেখবেন যে প্রতি বছর যেন কমপক্ষে দুটি নিউজলেটার প্রকাশিত হয়i

(ঝ) এলামনাই এসোসিয়েশনের বিবিধ কাজকর্ম সুচারুভাবে সম্পাদনের জন্য কার্য নির্বাহী কমিটির অন্যসব কর্মকর্তা ও সদস্যরা, বিশেষ করে বিভিন্ন দপ্তরভিত্তিক সম্পাদক ও সহকারী সম্পাদকরা এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদককে পুরো সহযোগিতা করবেI প্রয়োজন হলে এলামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি ও অন্য সব সদস্যদের সাথে আলোচনা ও সংখ্যাগরিষ্ঠ অনুমোদন সাপেক্ষে অস্থায়ী বা অ্যাডহক কমিটি গঠন করতে পারবেI কার্যনির্বাহী কমিটির কোন সদস্য অফিসের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলে বা অক্ষম হলে, কমিটির সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের দ্বারা নিয়োগ বা প্রতিস্থাপন করা করা যাবে I তবে কোনো অবস্থায়ই কোনো ঠুনকো অজুহাতে বা প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে কাউকে পদ থেকে অপসারণ করার মত পদক্ষেপ বা সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না।

কোষাধ্যক্ষ:
কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর নির্বাচিত কোষাধ্যক্ষ, অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনর ‘প্রধান অর্থ কর্মকর্তা’ হিসেবে কাজ করবেন ও অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট পরিচালনা সহ আর্থিক নথিতে তাঁকে একজন স্বাক্ষরকারী হতে হবে। যদিও কোষাধ্যক্ষ, অ্যাসোসিয়েশনর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে পরামর্শ করে কাজ করবেন, এল্যামনাই এসোসিয়েশনের মুখ্য অর্থবিষয়ক কর্মকর্তা হিসেবে তাকে অর্থনৈতিক লেনদেনে ও তহবিল ব্যাবস্থাপনায় সতর্কতা, স্বচ্ছতা, বৈধতা,ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবেI

১ জন যুগ্ম-সম্পাদক
নির্বাচিত যুগ্ম-সম্পাদক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে কাজ করবে এবং সাধারণ সম্পাদকের অনুপস্থিতিতে তিনি সাধারণ সম্পাদক-এর দায়িত্ব পালন করতে পারবেনI

১ জন সাংগঠনিক সম্পাদক ও ১ জন সহকারী সাংগঠনিক সম্পাদক:
সাংগঠনিক সম্পাদক ও সহকারী সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে কাজ করবেI

১ জন দপ্তর সম্পাদক ও ১ জন সহকারী দপ্তর সম্পাদক:
দপ্তর সম্পাদক ও সহকারী দপ্তর সম্পাদক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে কাজ করবে I

১ জন প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক এবং ১ জন সহকারী প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক:
প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক এবং সহকারী প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে কাজ করবেI

১ জন প্রকাশনা ও সাহিত্য সম্পাদক এবং ১ জন সহকারী প্রকাশনা ও সাহিত্য সম্পাদক:
প্রকাশনা ও সাহিত্য সম্পাদক এবং সহকারী প্রকাশনা ও সাহিত্য সম্পাদক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে কাজ করবেI

১ জন সাংস্কৃতিক ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক এবং ১ জন সহকারী সাংস্কৃতিক ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক:
সাংস্কৃতিক ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক. এবং সহকারী সাংস্কৃতিক ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে কাজ করবেI

১ জন ক্রীড়া সম্পাদক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে কাজ করবেI

এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির ৪ (চার) জন নির্বাচিত সদস্য অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচিত কর্মকর্তাদের সাথে কাজ করবেনI বিশেষ করে সভাপতি, ২ জন সহ-সভাপতি, সাধারন সম্পাদক এবং কোষাধ্যক্ষ— এদের সাথে মিলেমিশে নির্বাচিত সদস্যরা অ্যাসোসিয়েশনের সকল কার্যক্রম পরিচালনায় সহযোগিতা করবেI

খসড়া গঠনতন্ত্র ও বিধিমালা প্রণয়নকারীর কথা:

সুহৃদ পাঠক, কালীগঞ্জ আর.আর.এন. পাইলট সরকারি হাই স্কুল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর জন্য এই খসড়া গঠনতন্ত্র/অতিরিক্ত বিধিমালা প্রস্তুত করার জন্য অনেক স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনেই গঠনতন্ত্র ও বিধিমালা থেকে তথ্য-উপাত্ত, উদৃতি এবং পরিভাষা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে মুক্তহস্তে গ্রহণ ও পরিমার্জনা করেছি। খসড়া গঠনতন্ত্রটি প্রথমে ইংরেজীতে করেছিলাম এবং তা একজন বাংলা করেছিলেন এবং আমি তাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। বাংলায় এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের এই খসড়া গঠনতন্ত্র ও বিধিমালা প্রণয়ন করতে গিয়ে প্রয়োজন ও বিধিমালার প্রাসঙ্গিকতার খাতিরে নুতন করেই তৈরী করেছি। অনেকে মন্তব্য করে ও মতামত জানায়ে আমাকে সহযোগিতা করেছেন। আপনাদের সবাইকে ধন্যবাদ। আমার নিজের অনেক সীমাবদ্বতার জন্য এই ড্রাফটের মধ্যেও অনেক ভুলত্রুটি রয়ে গেছে। তবে আমিই যেহেতু এল্যামনাই অ্যাসোসিয়েশনের এই খসড়া গঠনতন্ত্র ও বিধিমালার প্রণেতা, তাই এই ত্রুটি বা বিচ্যুতির জন্য শুধুমাত্র আমাকেই দায়ী করা যাবে। কোন ধারা বা বিধিমালা সম্পর্কে আপনাদের মতামত সাদরে গ্রহণ করা হবে। আপনাদেরকে ধন্যবাদ।

বিনীত– মোহম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান মানিক, ক্লারক্সভিল, টেনেসি, যুক্তরাষ্ট্র, জানুয়ারী ১৭, ২০২২ সালI

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button