আলোচিতসারাদেশ

রায়পুরায় নির্বাচনি সহিংসতায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : নরসিংদীর দুর্গম চরাঞ্চল রায়পুরার বাঁশগাড়ি ইউনিয়নে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থদের মধ্যে নির্বাচনি সহিংসতায় গুলিতে তিন জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও প্রায় ১০ জন।

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) ভোরে বাঁশগাড়ি ইউনিয়নের টিরাবিল ঈদগাঁ ও চান্দেরকান্দি গ্রামে নৌকা ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

রায়পুরা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সত্যজিৎ কুমার সংবাদ মাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, নির্বাচনি সহিংসতায় এখন পর্যন্ত গুলিবিদ্ধ হয়ে তিন জন মারা গেছেন। নরসিংদী জেলা হাসপাতালে একজনের লাশ, সদর হাসপাতালে আরও একজন এবং অন্যজনের লাশ তার নিজ বাড়িতে রয়েছে।

তিনি আরও জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বাঁশগাড়ি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আশরাফুল হক ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রর্থী টেলিফোন প্রতীকের জাকির হোসেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এ ধারাবাহিকতায় ভোরে টিরাবিল ঈদগাঁ ও চান্দেরকান্দি গ্রামে এই দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে বাঁশগাড়ির নবাববাড়ি এলাকার সিরাজ মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়া (৩৭) নিহত হন। তিনি বর্তমান চেয়ারম্যান আশরাফুল হকের ভাতিজা বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এদিকে নরসিংদী জেলা হাসপাতালের আরএমও ডা. মিজানুর রহমান সংবাদ মাধ্যমকে জানান, সকালে জেলা হাসপাতালে বাঁশগাড়ি এলাকার সুবহানপুর গ্রামের হক মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীরের (২৫) গুলিবিদ্ধ লাশ আসে।

অন্যদিকে সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. আমিরুল ইসলাম শামীম সংবাদ মাধ্যমকে জানান, সকালে বাঁশগাড়ি বটতলিকান্দি গ্রামের আব্দুল হেকিম মিয়ার ছেলে সালাহ উদ্দিনের (৩৭) গুলিবিদ্ধ লাশ এসে পৌঁছে।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মেজবাহ উদ্দিন সংবাদ মাধ্যমকে জানান, ভোটের আগে সংঘর্ষ হওয়ায় পরবর্তী নিরবচ্ছিন্নভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। তবে বিভিন্ন প্রার্থীর সমর্থকরা মাঝে-মধ্যে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়লেও পুলিশি তৎপরতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এদিকে নরসিংদীর ১২টি ইউনিয়নে অন্যান্য কেন্দ্রগুলোতে শান্তিপূণ ভোটগ্রহণ চলছে। সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া এই ভোটগ্রহণ চলবে টানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত। নির্বাচনি পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে মাঠে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। জেলার নরসিংদী সদর ও রায়পুরা উপজেলার মোট ১২টি ইউনিয়নে চলছে এই ভোটগ্রহণ। এর মধ্যে রায়পুরায় ১০টি ও নরসিংদী সদরে দুটি ইউনিয়ন পরিষদের মোট ১১৫টি ভোটকেন্দ্রের ৫৩২টি চলছে ভোটগ্রহণ। নির্বাচনে চেয়ারম্যানে পদে মোট ৬৪ জন, সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য পদে ৩৫২ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড সদস্য পদে ১৩১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button