আন্তর্জাতিকআলোচিত

মৃত্যুর আগেই বৃটেনের মহারানির শেষকৃত্যের নকশা ফাঁস!

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ‘অপারেশন লন্ডন ব্রিজ’। হঠাৎ করে যদি এই কথা বলি তাহলে হয়তো অনেকেই বুঝবেন না। কিন্তু যদি বলি এটা কোনো জঙ্গি হামলার ছক বানচালের রণকৌশল নয়, এটি আসলে বৃটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যে কেমন আয়োজন হবে, তার একটা প্রাথমিক খসড়া। তাহলে হয়তো অনেকেরই চোখ কপালে উঠবে। হ্যাঁ, মৃত্যুর আগেই রানির শেষকৃত্যের মহড়া তৈরী করে ফেলেছে বৃটেন। রানির বয়স ৯৫ পেরিয়ে গেছে। সম্প্রতিই স্বামী ফিলিপকে হারিয়েছেন তিনি। সেই ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই সামনে এক নতুন ধাক্কা।

যে নকশা এসেছে, তাতে বলা হচ্ছে- মৃত্যুর ১০ দিন পরে সমাহিত করা হবে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে। এর মধ্যে বৃটেনের সংসদে তিন দিন রাখা থাকবে তাঁর মরদেহ। সেন্ট পলস ক্যাথিড্রালে রানির শোকসভার আয়োজন করা হবে। বেশ কয়েকদিন ধরেই চলবে শোকসভা। রানিকে সমাহিত করার আগে বৃটেনের চারটি দেশে সফর করার কথা তাঁর উত্তরসূরি তথা যুবরাজ চার্লসের। রানির মৃত্যুর পরে তাঁর শায়িত মরদেহ দেখতে যে হাজার হাজার মানুষের সমাগম হবে তাও এখন থেকেই আঁচ করা হয়েছে। এবং সেইমতো পুলিশি প্রহরার বন্দোবস্ত করার কথা ভাবা হয়েছে।

খাদ্য সংকট ও যানজট তীব্র আকার ধারণ করতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হয়েছে। আর সেই কারণেই পুরো বিষয়টিকে কীভাবে সামলানো হবে তার পরিকল্পনা আগাম করে রাখা হয়েছে ওই পরিকল্পনায়। এই পরিকল্পনারই নাম দেওয়া হয়েছে ‘অপারেশন লন্ডন ব্রিজ’। এর আগেও ২০১৭-য় দ্য গার্ডিয়ানে প্রকাশিত একটি দীর্ঘ নিবন্ধে এই ‘অপারেশেন লন্ডন ব্রিজ’-এর কথা শোনা গিয়েছিল। রানির মৃত্যুর পরে কী ভাবে চার্লসকে অভিষিক্ত করা হবে, তারও বর্ণনা ছিল ওই রিপোর্টে। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে এই নিবন্ধ বেরোনোর পরেও কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি বাকিংহাম প্যালেস। রানি যে দিন মারা যাবেন, সে দিন স্বাভাবিক ভাবেই ‘জাতীয় শোক’ পালন করা হবে। এটাই রেওয়াজ। তবে বাকি বিবরণ ফাঁস হয়ে যাওয়াতেই অস্বস্তি বেড়েছে বাকিংহাম প্যালেসের।

 

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button