গাজীপুর

মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে কয়েল জ্বালানোর সময় আগুনে দগ্ধ ৪

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে মধ্যে রাতে ঘুম থেকে জেগে মশার উপদ্রব কমাতে কয়েল জ্বালানোর সময় আগুন ধরে এক পরিবারের ৪জন দগ্ধ হয়েছে।

শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে গাজীপুর মহানগরের চক্রবর্তী এলাকার আব্দুল জলিলের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে।

দগ্ধরা হলেন- ওই এলাকার আব্দুল জলিল (৪৫), তার ছেলে ইয়াসিন মাহমুদ (১৩), মেয়ে জিয়াসমিন (২০) ও মেয়ে জামাই আবুল হাসান (২৩)।

পুলিশ ও দগ্ধ পরিবার জানান, শুক্রবার (২৯ মার্চ) আব্দুল জলিলের মেয়ে জিয়াসমিন তার স্বামী আবুল হাসানকে নিয়ে বাবার বাড়ি বেড়াতে যান। রাতে জিয়াসমিন তার স্বামী আবুল হাসান ও ছোট ভাই ইয়াসিন মাহমুদ এক রুমে ঘুমায়। পাশে আরেকটি রুমে তার বাবা মা ঘুমিয়ে পড়েন। রাত ৩টার দিকে মশার কয়েল জ্বালানোর সময় জিয়াসমিনের পড়া লেলিল কাপড়ে আগুন ধরে যায়। মুহুত্বের মধ্যে আগুন পুরো রুমে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় রুমের এক পাশের দেয়াল তারা ৩জন ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় এবং পাশে একটি ডুবার পানিতে পড়ে যায়। এক পর্যায়ে তাদের চিৎকার শুনে জিয়াসমিনের বাবা আব্দুল জলিল তাদের উদ্ধার করতে ওই রুমে গেলে তিনিও দগ্ধ হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে তায়রুন্নেছা মেমোরিয়াল (কেপিজে) মেডিকেল হাসপাতাল নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে শনিবার (৩০ মার্চ) সকালে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়।

দগ্ধ আব্দুল জলিল জানান, মশার কয়েল থেকে ঘরে আগুন ধরে যায়। এ সময় তার ছেলে, মেয়ে ও মেয়ে জামাই দগ্ধ হয়। এক পর্যায়ে তাদের উদ্ধার করতে গেলে তিনিও দগ্ধ হন। আগুনে তার মেয়ের শরীরের ৮৭ ভাগ পুড়ে গেছে বলে চিকিৎসকরা তাকে জানান। এ ঘটনায় তার মেয়ে ও মেয়ে জামাই বেশী দগ্ধ হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, গাজীপুরে মশার কয়েল থেকে আগুন লেগে ৪জন দগ্ধ হয়েছে। পরে সকালে ৪জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে জিয়াসমিন নামে একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং অন্য ৩জনকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে জিয়াসমিনের অবস্থা গুরুতর।

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button