আইন-আদালত

পরকীয়ার সাজা বৃদ্ধি চেয়ে হাইকোর্টে রিট

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : পরকীয়া করার অপরাধের সাজা সংক্রান্ত দণ্ডবিধির ৪৯৭ ধারার সংশোধন এবং এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। রিটে দণ্ডবিধির এই ধারা কেন অসাংবিধানিক ও বাতিল ঘোষণা করা হবে না, এই মর্মে রুল জারির আবেদন জানানো হয়েছে।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান।

এর আগে গত ৫ ফেব্রুয়ারি বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক বা পরকীয়ার সাজা বৃদ্ধি এবং দণ্ডবিধির ৪৯৭ ধারার সংশোধন চেয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকসহ পাঁচজনকে আইনি নোটিশ পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ফাইজুল্লাহ ফয়েজ।

রিট দায়েরের বিষয়ে আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান বলেন, ‘বাংলাদেশ দণ্ডবিধির ৪৯৭ ধারা অনুযায়ী, কোনও স্ত্রী বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক করলে, যার সঙ্গে সম্পর্ক করবেন, শুধু সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে শাস্তির বিধান রয়েছে। অথচ স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর কিছুই করার নেই। একইভাবে স্বামী বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জড়ালে স্ত্রী ওই স্বামীর বিরুদ্ধে বা স্বামী যার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িত হবেন, তার বিরুদ্ধে কোনও প্রতিকার পাবেন না।’

অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান বলেন, ‘দণ্ডবিধির ৪৯৭ ধারা অনুসারে স্বামী যদি কোনও বিধবা বা অবিবাহিত নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন এবং স্ত্রী যদি স্বামীর অনুমতি সাপেক্ষে সম্পর্কে জড়িত হন, তা আইনে বৈধতা দেওয়া হয়েছে।’ তাই ৪৯৭ নম্বর ধারাটি সংবিধানের ২৭, ২৮ ও ৩২ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক এবং বৈষম্যমূলক হওয়ায় রিটটি দায়ের করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

রিটে আইন মন্ত্রণালয়ের আইন সচিব ও লেজিসলেটিভ ও ড্রাফটিং বিভাগের সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সংবিধানের ২৭, ২৮ ও ৩২ ধারায় যথাক্রমে আইনের দৃষ্টিতে সমতা, ধর্ম প্রভৃতি কারণে বৈষম্য এবং জীবন ও ব্যক্তি-স্বাধীনতার অধিকাররক্ষণের কথা বলা হয়েছে।

 

আরো জানতে……

স্ত্রীর পরকীয়ায় ছয় বছরের মেয়েকে হত্যা করলো পিতা

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button