গাজীপুর

কেন্দ্র দখলের আশঙ্কা: ”সিসি ক্যামেরা স্থাপন ও বহিরাগতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা” নেয়ার দাবী

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : কালীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে ‘কেন্দ্র দখলের আশঙ্কা’ প্রকাশ করে ভোট কেন্দ্রে ‘সিসি ক্যামেরা স্থাপন ও বহিরাগতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’ নেয়াসহ ৬ দফা দাবীতে রিটার্নিং অফিসারের কাছে আবেদন করেছেন ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান কাউন্সিলর মোফাজ্জল হোসেন আকন্দ মোমেনের।

প্রশাসন বলছে, ভোটাররা যাতে নিরাপদে কেন্দ্রে যেতে পারেন, সে জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

কালীগঞ্জ পৌরসভা ১ নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মোফাজ্জল হোসেন আকন্দ মোমেনের সঙ্গে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আবুল হাসেম ভূইয়া।

‘কেন্দ্র দখলের আশঙ্কা’ প্রকাশ করে রিটার্নিং অফিসারের কাছে মোফাজ্জল হোসেন আকন্দ মোমেন আবেদনে যা উল্লেখ করেছেন, ”নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচনের দিন বহিরাগতদের নির্বাচনী এলাকায় প্রবেশ নিষিদ্ধ করে অতিরিক্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়ন এবং অতিরিক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ নির্বাচন কমিশনের নিজস্ব পর্যবেক্ষক নিয়োগের দাবী জানিয়েছেন তিনি।’

আবেদন আরো বলেন, ”বর্তমান নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনে বদ্ধপরিকর। ইতিমধ্যে কমিশনের যোগ্য নেতৃত্বে নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং তা দেশ ও বিদেশে সমাদৃত হয়েছে। আমার প্রত্যাশা আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি (রোববার) অনুষ্ঠিতব্য কালীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হবে এবং এ লক্ষে নির্বাচন কমিশন বদ্ধপরিকর। বর্তমান নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য অনেক কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।”

”কিন্তু সরকারের অতি উৎসাহী কিছু কর্মী ও কর্মকর্তা কমিশনের কার্যক্রমকে বিতর্কিত করে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করছে।”

”কালীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন সীমানা সংক্রান্ত জটিলতায় যথাসময়ে অনুষ্ঠিত না হওয়ায় এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা যে কোনো মূল্যে নির্বাচিত হতে চায় এমন মানসিকতা সৃষ্টি হয়েছে।”

”এখনই সরকার দলীয় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর লোকজন দাঙ্গা-হাঙ্গামা শুরু করেছে। এতে পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্রে দখল যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।”

”টেকসই গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে নিরীহ ভোটরা যেন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে সে লক্ষে ৩ হাজার ৪৬৩ জন ভোটারের কালীগঞ্জ পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ড নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের জন্য আমার ৬ দফা দাবীসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আবেদন করছি।”

মোফাজ্জল হোসেন আকন্দ মোমেনের ৬ দফা দাবী

এক, ”১ নং ওয়ার্ডের ২ টি ভোট কেন্দ্রের জন্য দুইজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ।”

দুই, ”ভোট গ্রহণের দিন ও ভোটের আগের দিন ১ নং ওয়ার্ডে দায়িত্ব পালনের জন্য র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) দুইটি টিম নিয়োগ।”

তিন, ”১ নং ওয়ার্ডে দায়িত্ব পালনের জন্য বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর এক প্লাটুন সদস্য মোতায়ন এবং তাদের সঙ্গে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ।”

চার, ”ভোট কেন্দ্রের সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে সকল কেন্দ্রে ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা স্থাপন।”

পাঁচ, ”নির্বাচনের দিন সকাল ৭টা থেকে ফলাফল ঘোষণা পর্যন্ত কালীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনী এলাকায় নির্বাচনী কাজে জড়িত ব্যক্তিদের সকল প্রকার বহিরাগতদের নির্বাচনী প্রচার, সহযোগিতা কিংবা ভোটারদের প্রলুব্ধ বা ভয়-ভীতি প্রদর্শন না করতে পারে সেই লক্ষ্যে বহিরাগতদের প্রবেশ করতে না পারে সেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে জনসাধারণের মাঝে তা প্রচার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা।”

ছয়, ”নির্বাচন কমিশনের ভাবমূর্তি যাতে নিয়োজিত আইন শৃঙ্খলা বাহিনী প্রশ্নবিদ্ধ না করতে পারে তা মনিটরিং করার জন্য এবং নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করার জন্য ১ নং ওয়ার্ডের ২ টি ভোট কেন্দ্রে নির্বাচন কমিশনের দুইজন কর্মকর্তা নিয়োগ।”

‘কেন্দ্র দখলের আশঙ্কা’ প্রকাশ করে কালীগঞ্জ পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান কাউন্সিলর মোফাজ্জল হোসেন আকন্দ মোমেন বলেন, ”ভোট কেন্দ্রে ‘সিসি ক্যামেরা স্থাপন ও বহিরাগতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’ নেয়াসহ ৬ দফা দাবীতে রিটার্নিং অফিসারের কাছে আবেদন করেছি। অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য ৬ দফা দাবী বাস্তবায়নে নির্বাচন সংশ্লিষ্টরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে আমি আশা করছি।”

এ বিষয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও কালীগঞ্জ পৌর নির্বাচনের সহকারী রিটানিং কর্মকর্তা ফারিজা নূর বলেন, ”আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ভোটাররা যাতে নিরাপদে কেন্দ্রে যেতে পারেন, সে জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।”

উল্লেখ্য : আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) কালীগঞ্জ পৌরসভার দ্বিতীয়বারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দ্বিতীয় শ্রেণির মর্যাদাপূর্ণ কালীগঞ্জ পৌরসভার দুর্বাটি, বাঙ্গালহাওলা, দেওয়ালটেক এবং মাওনারটেক গ্রাম নিয়ে গঠিত ১ নং ওয়ার্ড। খসড়া ভোটার তালিকা অনুযায়ী ১ নং ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ হাজার ৪৬৩ জন। ভোট কেন্দ্র ২ টি। দুর্বাটি এম.ইউ কামিল মাদ্রাসার ফ্যাসিলিটিস ভবন এবং একাডেমিক ভবন।

 

আরো জানতে…..

পৌর নির্বাচন: অর্থ-সম্পদ নেই, তবু ‘তথ্য গোপন’ রিপনের: শান্তা, জামান ও নাইম ব্যবসায়ী

কালীগঞ্জ পৌর নির্বাচন: অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হোক

কালীগঞ্জ পৌর নির্বাচন: মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ

কালীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে লড়াই হবে ত্রিমুখ

পৌর নির্বাচন: আতাব উদ্দীনের ‘ঋণ’ কোটি টাকা, বাদল এগিয়ে শিক্ষায়, আকরাম ব্যবসায়ী

পৌর নির্বাচন: শিক্ষা ও অর্থ-সম্পদে এগিয়ে আফসার, ‘তথ্য গোপন’ রয়েছে চান্দু মোল্লার!

পৌর নির্বাচন: হাসেম ভূইয়া এগিয়ে অর্থ-সম্পদে, মোমেন মামলায়, আরমান ‘অক্ষরজ্ঞান সম্পূর্ণ’

কালীগঞ্জ পৌর নির্বাচন: শিক্ষা ও অর্থে এগিয়ে স্বতন্ত্র, ব্যবসায়ী আ.লীগ, মামলায় এগিয়ে বিএনপি প্রার্থী

কালীগঞ্জে ৪ মেয়র প্রার্থীসহ ৪৯ জনের মনোনয়ন দাখিল

খসড়া তালিকা অনুযায়ী কালীগঞ্জ পৌরসভার মোট ভোটার ৩৯ হাজার ৮৩৫ জন, ভোট কেন্দ্র ১৭ টি

কালীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন এস এম রবীন হোসেন

কালীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন ২৮ ফেব্রুয়ারি: ভোট ইভিএমে, থাকবে না সাধারণ ছুটি

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close