আন্তর্জাতিকআলোচিত

দুই ডোজ ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় সংক্রমিত

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জার্মানির একটি নার্সিংহোমে করোনা ভ্যাকসিনের দুটো ডোজ দেওয়ার পরেও ১৪ জন করোনা পজিটিভ হয়েছেন। এ পরিস্থিতিতে লকডাউন তুলে না নেওয়ার পরামর্শ বাভারিয়ার মুখ্যমন্ত্রীর।

ওসনাব্রুক শহরের বেল্ম এলাকার একটি নার্সিংহোমে ব্রিটেনের নতুন ধরনের করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছে, যদিও নার্সিংহোমের সবাই বায়োএনটেক ফাইজারের প্রথম ভ্যাকসিন আগেই নিয়েছিলেন। এবং শেষ শটটি তারা নেন ২৫ জানুয়ারি। তারপরও গত সপ্তাহের শেষদিকে করোনা পরীক্ষায় ১৪ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ে। পরীক্ষার আগে তাদের কারো মাঝে করোনার কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি। তাদের সংক্রমিত হওয়ার কারণ এখনো স্পষ্ট নয়।

এদিকে করোনার তৃতীয় ঢেউ-এর ঝুঁকি এড়াতে লকডাউন তাড়াতাড়ি তুলে না দেওয়ার জন্য সরকারকে সতর্ক করলেন বাভারিয়া রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মার্কুস স্যোয়ডার৷ মহামারি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে করোনা বিধিনিষেধ নিয়ে জার্মান সংবাদমাধ্যম এআরডি-কে এ কথা জানান, তিনি।

ডিসেম্বরের মাঝামাঝি থেকে শুরু হওয়া এ পর্যায়ের কড়া লকডাউন চলবে ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তবে বর্তমান অবস্থায় লকডাউন আরো বাড়ানো হবে কিনা সে বিষয়ে আগামী বুধবার চ্যান্সেলর ম্যার্কেল ১৬টি রাজ্যের প্রধানদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনা করবেন।

এ প্রসঙ্গে স্যোয়ডার বলেন, “আমি মনে করি, বর্তমান পরিস্থিতিতে লকডাউন বাড়ানো” উচিত।” লকডাউন এখনই তুলে দেওয়া বোকামি হবে বলে তিনি মনে করেন। তিনি বলেন, “এই পরিস্থিতি সবকিছু আবার খুলে দিলে আগামী দুই তিন সপ্তাহের মধ্যে পরিস্থিতি এখন যা আছে তার চেয়েও খারাপ হতে পারে। এখন যদি আমরা আবার ভুল করি, তাহলে করোনার তৃতীয় ঢেউ আসবে ৷”

রবার্ট কখ ইনস্টিটিউটের (আরকেআই)-এর হিসেব মতে, জার্মানিতে কোভিড-১৯ এ সংক্রমিত হয়ে এ পর্যন্ত ৬১ হাজার ৬৭৫জন মারা গেছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close