খেলাধুলা

সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডে শিখরে থাকা পেলেকে ছুঁলেন মেসি

গাজীপুর কণ্ঠ, খেলাধুলা ডেস্ক : একটি ক্লাবের হয়ে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড এত দিন ছিল ব্রাজিলের কালো মানিকখ্যাত পেলের। এবার তার নামের পাশে যুক্ত হলো আরো একটি নাম, লিওনেল মেসি। এক ক্লাবের হয়ে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ড এখন যৌথভাবে এই দুজনের।

স্বদেশের ক্লাব সান্তোসের হয়ে ১৯ মৌসুমে ৬৪৩ গোল করেছিলেন পেলে। বার্সেলোনার হয়ে ১৭ মৌসুমেই পেলেকে ছুঁলেন মেসি। আর মাত্র একটি গোলে আসলেই পেলেকে ছাড়িয়ে রেকর্ডটি নিজের করে নিবেন মেসি।

শনিবার ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনা মুখোমুখি হয়েছিল ভ্যালেন্সিয়ার। উত্তেজনায় ঠাসা ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়। এই ম্যাচে একটি গোল করে পেলেকে স্পর্শ করেন মেসি।

মেসির গোলটি ছিল নাটকীয়তায় পূর্ণ। প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে পেনাল্টি পেয়েছিল বার্সা। পেনাল্টি কিক নেন মেসি। কিন্তু মেসির শট ঝাপিয়ে পড়ে রক্ষা করেন ভ্যালেন্সিয়ার গোলরক্ষক। কিন্তু ফিরতি বলে তৎপর জর্দি আলবার ক্রস থেকে হেডে গোল করেন মেসি।

অবশ্য এর আগে ২৯ মিনিটে ম্যাচে লিড নিয়েছিল ভ্যালেন্সিয়া। স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সোলেরের কর্নারের হেডে পোস্ট ঘেঁষে বল জালে জড়ান দিয়াখাবি।

বিরতির আগের মিনিটে মেসির দারুণ পাস ধরে ডি-বক্সে ঢোকা অঁতোয়ান গ্রিজমানকে ফাউল করায় হোসে গায়াকে লাল কার্ড দেখান রেফারি, পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা। ভিএআরের সাহায্যে পরে লাল কার্ড বাতিল করে হলুদ কার্ড দেখান রেফারি।

দ্বিতীয়ার্ধের ৫২ মিনিটে রোনাল্ড আরাজোর দারুণ এক গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা (২-১)। ডি-বক্সের মুখ থেকে অসাধারণ বাইসাইকেল কিকে বার্সেলোনার হয়ে প্রথম গোলটি করেন ২১ বছর বয়সী উরুগুয়ের এই সেন্টার-ব্যাক।

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমজমাট লড়াইয়ের ৬৯ মিনিটে সমতায় ফেরে ভালেন্সিয়া। বাঁ দিকের বাইলাইন থেকে গায়ার কাটব্যাক ছয় গজ বক্সের মুখে পেয়ে নিখুঁত শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন গোমেস। বাকি সময়ে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণ হলেও গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই।

১৩ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে বার্সা। এক ম্যাচ বেশি খেলে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বাদশ স্থানে ভালেন্সিয়া। দিনের প্রথম ম্যাচে লুইস সুয়ারেজের জোড়া গোলে এলচেকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে শীর্ষস্থান মজবুত করেছে আটলেটিকো মাদ্রিদ। ১২ ম্যাচে ৯ জয় ও দুই ড্রয়ে তাদের পয়েন্ট ২৯।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close