আলোচিতসারাদেশ

খাসজমি দখলমুক্ত করে শিশুপার্ক নির্মাণ

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সরকারি জায়গা দখলমুক্ত করে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে তিতাস শিশুপার্ক গড়ে তোলা হয়েছে।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) বিকেল পাঁচটায় জেলা শহরের শিমরাইলকান্দি এলাকায় তিতাস নদের পাড়ে জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান এই পার্কের উদ্ধোধন করেন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, জেলা শহরের শিমরাইলকান্দি এলাকায় তিতাস নদের পাড়ে ১৫ শতক সরকারি জায়গা ছিল। স্থানীয় লোকজন এটি দখলের চেষ্টা করে আসছিলেন। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ওই জায়গা দখলমুক্ত করেন। পরে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সেখানে শিশুদের জন্য একটি পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়। তিতাস নদের পাড়ে অবস্থিত হওয়ায় এর নাম তিতাস শিশুপার্ক রাখা হয়েছে।

খেলতে ভিড় জমিয়েছে শিশুরা। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিতাস শিশুপার্ক।

চলতি বছরের মার্চ মাসে এই পার্ক উদ্বোধন করার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে তা সম্ভব হয়নি। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ১৫ শতক খাস জায়গার চারপাশে দেয়াল দিয়ে ভেতরে শিশুদের জন্য বিভিন্ন খেলার স্থাপনা নির্মাণ করা হয়। বর্তমানে ওই পার্কে দোলনা, গোলাকার ঘূর্ণায়মানসহ আটটি স্থাপনা বসানো হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মর্কতা (ইউএনও) পঙ্কজ বড়ুয়া সভাপতিত্ব করেন। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক। আরও উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজুর রহমান, পৌর মেয়র নায়ার কবির, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রুহুল আমিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মেহেদী মাহমুদ আকন্দ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এইচ মাহবুবব আলম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এ বি এম মশিউজ্জামান প্রমুখ।

জেলা প্রশাসক বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিশুদের বিনোদন কেন্দ্রের অভাব রয়েছে। তিতাসপাড়ের এই জায়গায় পার্ক নির্মাণ করায় শিশুরা তিতাস নদ উপভোগ করার পাশাপাশি পার্কের আনন্দও উপভোগ করতে পারবে।

ইউএনও পঙ্কজ বড়ুয়া বলেন, আপাতত কিছু খেলার সামগ্রী বসানো হয়েছে। এখানে আরও খেলার সামগ্রী বসানো হবে। শিশুপার্ক নির্মাণে এখন পর্যন্ত ১৪ লাখ টাকা খরচ হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close