তথ্য প্রযুক্তিবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

পালং শাক থেকে হবে বিদ্যুৎ : গবেষণা

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : সারাবিশ্বে নবায়ন যোগ্য জ্বালানি নিয়ে গবেষণার শেষ নেই। কারণ প্রাকৃতিক সম্পদ অফুরন্ত নয়। এবার সেই গবেষণায় যুক্ত হলো মানুষের খাবারের তালিকায় থাকা পালং শাক। এই শাক থেকেই উৎপাদন হবে বিদ্যুৎ। আবাক শোনালেও এমনটাই দাবি করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একদল বিজ্ঞানী।

ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির রসায়ন বিভাগের একদল বিজ্ঞানী এই গবেষণাটি করেন। সম্প্রতি এসিএস ওমেগা জার্নাল এই গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম নিউজ এইট্টিন।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, তিনটি কারণে পালং শাক নিয়ে গবেষণা করেন এই রসায়নবিদগণ। এর মধ্যে প্রথমটা হল খনিজ পদার্থের সীমিত পরিমাণ। দ্বিতীয় কারণ মূল্যবৃদ্ধি। আর তৃতীয় কারণটিকে রসায়ন বিজ্ঞানের ভাষায় ফুয়েল সেল বলা হয়। রাসায়নিক বিক্রিয়ার দ্বারা প্রভাবিত হয়ে কোনো কোষ যখন বিদ্যুৎ উৎপাদন করে, সেই প্রক্রিয়াকেই ফুয়েল সেল বলা হয়।

এই রাসায়নিক বিক্রিয়ার সময় প্রক্রিয়াকে সরাসরি প্রভাবিত করার জন্য একটা অনুঘটকের প্রয়োজন হয়। এতো দিন প্ল্যাটিনামকে সেই অনুঘটক হিসেবে ব্যবহার করা হতো। এই পদ্ধতিকে অক্সিজেন রিডাকশন রি-অ্যাকশন বলা হয়। প্ল্যাটিনাম কার্বনযুক্ত অনুঘটক জোগান দেয়, এর ফলে ইলেকট্রন স্থানান্তরিত হয়ে বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয়।

এদিকে পৃথিবীর প্ল্যাটিনামের পরিমাণ অফুরন্ত নয়। আবার এর দামও অনেক বেশি। তাই দীর্ঘদিন ধরে এর বিকল্প খোঁজ করছিলেন বিজ্ঞানীরা। তাই নানা জৈব নিয়ে কাজ করেন তারা। এরপরই পালং শাকের মধ্যে সেই গুণ পান বিজ্ঞানীরা।

দীর্ঘ গবেষণার পর বিজ্ঞানীরা জানান, পালং শাকে প্রচুর পরিমাণে কার্বন রয়েছে, যা অনুঘটক জোগান দিতে পারে। এমনকি মানের দিক থেকে প্ল্যাটিনাম-উৎপন্ন কার্বন অনুঘটকের সমান এই শাক।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close