গাজীপুর

পূবাইলে ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট, আহত ২ ব্যবসায়ী

বিশেষ প্রতিনিধি : পূবাইলের কুদাব এলাকায় তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস (এলপিজি) সিলিন্ডারের পরিবেশকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। ডাকাত দল নগদ প্রায় ১০ লাখ টাকা ও ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট করেছে। এ সময় ডাকাতদের হামলায় সহোদর দুই ব্যবসায়ী গুরুতর আহত হয়েছে।

শুক্রবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে কুদাব হোসেন উদ্দিন পালোয়ানের বাড়িতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

সত্যতা নিশ্চিত করেছেন জিএমপি’র পূবাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাজমুল হক ভূইয়া।

ডাকাতদের হামলায় আহত দুই ব্যবসায়ী সজীব পালোয়ান (৩৫) ও তার সহোদর রাকিব পালোয়ান (৩৮)। তাদের পিতা সত্তরোর্দ্ধ বৃদ্ধ হোসেন উদ্দিন পালোয়ান। আহত সহোদর তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস (এলপিজি) সিলিন্ডার জি-গ্যাসের পরিবেশক। তাদের দোকান তালটিয়া বাজারে।

আহত সহোদর ব্যবসায়ীর ভগ্নিপতি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী নজরুল ইসলাম খান বিকি বলেন, শুক্রবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে ৮/১০ জনের একদল সশস্ত্র ডাকাত কলাপসিবল গেটের তালা কেটে ও দরজা ভেঙ্গে বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করে। পরে ডাকাতরা ঘরে ঢুকে সকলকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ফেলে এবং আলমিরা থেকে ১০ লাখ টাকা ও ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়। ডাকাতরা ঘরের মূল্যবান আসবাবপত্র তছনছ করে এবং ৬টি মোবাইল সেটসহ আরো মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে। এসময় বাঁধা দেওয়ায় ব্যবসায়ী সজীব পালোয়ান (৩৫) ও তার সহোদর রাকিব পালোয়ানকে (৩৮) ছুরিকাঘাত করে ডাকাতরা। পরে লুন্ঠিত মামামাল নিয়ে পালিয়ে যায় ডাকাতদল। ছুরিকাঘাতে সজিবের কণ্ঠনালী ও রাকিবের হাত কেটে যায়। দু’ছেলের রক্তক্ষরণ দেখে তাদের সত্তরোর্দ্ধ বৃদ্ধ পিতা হোসেন উদ্দিন পালোয়ান জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

তিনি আরো বলেন, ডাকাত দল পালিয়ে যাওয়ার পর আহতদের ডাক চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করেন। পরে সজিব ও রাকিবকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকায় অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। খবর পেয়ে শনিবার সকালে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) পূবাইল থানা পুলিশসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনাস্থল থেকে ডাকাতদের ফেলে যাওয়া কিছু গুরুত্বপূর্ণ আলামত জব্দ করেছে পুলিশ। এ বিষয়ে মামালা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জিএমপি’র পূবাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাজমুল হক ভূইয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ডাকাত দলকে আটক এবং লুন্ঠিত মামামাল উদ্ধার অভিযান চলছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close