আলোচিতজাতীয়

সরকারের জন্য ৫ চ্যালেঞ্জ

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : করোনা সংক্রমণের চার মাস অতিবাহিত করেছে বাংলাদেশ। এই চার মাসে ভালোমন্দ মিলিয়ে সরকার করোনা মোকাবেলার চেষ্টা করেছে। তবে জনগণের মধ্যে সব থেকে আস্থার জায়গা হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দুরদর্শী নেতৃত্ব এবং তাঁর আন্তরিক ইচ্ছা। নানারকম ত্রুটি-বিচ্যুতি সত্ত্বেও জনগণের মাঝে একটা আস্থার জায়গা আছে যে, শেখ হাসিনা জনগণের জন্য চিন্তা করেন, তিনি জনগণের মঙ্গল কামনা করেন।

এই চার মাসের মধ্যেও সরকার অর্থনীতিকে সচল রেখেছে এবং নতুন অর্থ বছরের জন্য একটি প্রেরণাদায়ী বাজেট উপহার দিতে পেরেছে জনগণকে। এই বাজেটকে ঘিরে করোনায় অর্থনীতি সঙ্কট মোকাবেলায় কাজ করার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু নতুন অর্থবছরে সরকারের সামনে পাঁচটি চ্যালেঞ্জ আছে এবং এই চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করেই সরকারকে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই চ্যালেঞ্জগুলোকে সরকারের মোকাবেলা করতে হবে অত্যন্ত শক্তভাবে। সরকারের জন্য প্রধান যে ৫টি চ্যালেঞ্জ রয়েছে তাঁর মধ্যে আছে-

১. স্বাস্থ্যখাতের ইমেজ সঙ্কট

করোনা সঙ্কটের শুরু থেকেই স্বাস্থ্যখাত ইমেজ সঙ্কটে ভুগছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একের পর এক ব্যর্থতা, অযোগ্যতা এবং দায়িত্বহীনতার কারণে স্বাস্থ্যখাত নিয়ে জনমনে অস্বস্তি এবং অনাস্থা তৈরি হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও স্বাস্থ্যখাত নিয়ে নিজের অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। বিশেষ করে স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি এবং ধীরগতি নিয়ে বারবার প্রধানমন্ত্রী তাগাদা দিচ্ছেন। স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি এখন যেন ওপেন সিক্রেটে পরিণত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ বলেছেন যে, দেশের সব মানুষ বিশ্বাস করে যে, স্বাস্থ্যখাত দুর্নীতিগ্রস্ত। এর ফলে এক ইমেজ সঙ্কটে পড়েছে স্বাস্থ্যখাত। তাছাড়া জিকেজি কেলেঙ্কারির মতো দুর্নীতিগুলোর মাধ্যমে স্বাস্থ্যখাতের ইমেজ তলানিতে চলে গেছে। সরকারের জন্য সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ হলো স্বাস্থ্যখাতের ইমেজ পুনরুদ্ধার করা। বর্তমান নেতৃত্বকে ভাল রেখে ইমেজ পুনরুদ্ধার করা যায় কিনা সেটা দেখার বিষয়।

২. আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারীদের অপকর্ম

করোনা সঙ্কটের সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কাজ করেছেন, আওয়ামী লীগের অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতারা জনগণের পাশে থেকেছেন। অন্য কোন রাজনৈতিক সংগঠনকে এভাবে পাশে দেখা যায়নি। অথচ আওয়ামী লীগের কিছু অনুপ্রবেশকারীদের কারণে আওয়ামী লীগের ইমেজ ক্ষুণ্ণ হয়েছে। যার সবশেষ উদাহরণ হলো রিজেন্ট হাসপাতালের সাহেদ। আওয়ামী লীগের নেতারাই হতবাক, এই ব্যক্তি কিভাবে আওয়ামী লীগে প্রবেশ করলো এবং কিভাবে আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপকমিটির সদস্য হলো। এই সমস্ত অনুপ্রবেশকারীরাই ত্রাণের টাকা আত্মসাৎ করেছে এবং বিভিন্ন অপকর্ম করেছে। কাজেই বিভিন্ন অনুপ্রবেশকারীদের অপকর্ম সরকারের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

৩. বন্যার পদধ্বনি

করোনা সঙ্কটের সময় আম্ফানের মতো ঘূর্ণিঝড়কে সাফল্যের সঙ্গে মোকাবেলা করেছে সরকার। এবার সামনে আসছে বন্যা। আবহাওয়া বিশ্লেষকরা বলছেন যে, বাংলাদেশের বন্যা এবার ৯৮ এর আদলে হতে পারে এবং এবারের বন্যা দীর্ঘস্থায়ী হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অনেকেই। করোনার সঙ্গে নতুন করে যোগ হওয়া এই বন্যা সরকারের জন্য নতুন চ্যালেঞ্জ হিসেবে সামনে এসেছে এবং এই চ্যালেঞ্জ সরকারকে মোকাবেলা করতে হবে।

৪. বিশ্বে বিচ্ছিন্ন হচ্ছে বাংলাদেশ

করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকেই বাংলাদেশ বিশ্বের সঙ্গে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এখন নতুন করে যখন সবকিছু সচল হচ্ছে, জীবন-জীবিকা একসঙ্গে চালানো এবং অর্থনীতিকে সচল রাখতে বিশ্বের অনেক দেশই লকডাউন তুলে দিয়েছে। অভিবাসীরা সেই দেশগুলোতে যখন ফেরত যাচ্ছে তখন বাংলাদেশের সামনে এক নতুন সঙ্কট দেখা গেছে। করোনার ভুয়া রিপোর্টের কারণে ইতালিতে বাংলাদেশের নাগরিকদের প্রবেশ এক সপ্তাহের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়াও বাংলাদেশের জন্য প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। করোনায় ভুয়া রিপোর্টের কারণে আন্তর্জাতিক মহলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে। এই ভাবমূর্তি যেন আর নষ্ট না হয় সেক্ষেত্রে কঠোর নজরদারি দিতে হবে, সরকারের জন্য এটা এক বড় চ্যালেঞ্জ।

৫. মধ্যবিত্তের অর্থনৈতিক সঙ্কট প্রকট হচ্ছে

করোনা সঙ্কটের পর বেকারত্ব বেড়েছে, মধ্যবিত্তের সঙ্কট বেড়েছে। সরকার যেমন দরিদ্র মানুষের জন্য নিরাপত্তা বেষ্টনী গড়েছে, ঠিক তেমনি মধ্যবিত্তদের টিকিয়ে রাখা এবং মধ্যবিত্তদের জীবন-জীবিকা নিশ্চিত করাও সরকারের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর একারণেই মধ্যবিত্তদের মাঝে যেন ক্ষোভ-অসন্তোষের সৃষ্টি না হয়, তাঁরা যেন বেকারত্ব, অভাব-অনটনগুলো মোকাবেলা করতে পারে সেটাও সরকারের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ।

এইসমস্ত চ্যালেঞ্জ মাথায় নিয়েই সরকার নতুন অর্থবছরের কাজ শুরু করবে এবং সরকারকে সফল হতে হলে এই চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করতেই হবে।

 

সূত্র: বাংলা ইনসাইডার

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close