গাজীপুর

প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক অনুদান পেলেন কালীগঞ্জের নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় চার মাস ধরে বন্ধ রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এতে সবচেয়ে অসহায় জীবনযাপন করছেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। তাই নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের এককালীন আর্থিক অনুদান দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ২ লাখ ৬০ হাজার টাকা নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়েছে কালীগঞ্জে কর্মরত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নন এমপিওভুক্ত ৫৬ জন শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে শিক্ষকদের পাঁচ হাজার ও কর্মচারিদের আড়াই হাজার টাকা করে নগদ অর্থ দেওয়া হয়।

সোমবার (৬ জুলাই) উপজেলা পরিষদের মিলনায়তনে শিক্ষক-কর্মচারিদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করেন কালীগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শিবলী সাদিক।

উপজেলার ছয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ননএমপিওভূক্ত শিক্ষক ও কর্মচারিরা এসব সহায়তা পেয়েছেন। 

প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক অনুদান নগদ অর্থ বিতরণ করছেন কালীগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শিবলী সাদিক।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শিবলী সাদিক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে কালীগঞ্জ উপজেলার ৪৮ জন শিক্ষক এবং ৮ জন কর্মচারিদের মাঝে ২ লাখ ৬০ হাজার টাকা নগদ অর্থ সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে। শিক্ষকরা আসলেই অনেক মানবেতর জীবনযাপন করছেন। প্রধানমন্ত্রীর এই উদ্যোগটি সত্যিই প্রশংসনীয়’।

উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে নগদ অর্থ সহায়তা পেয়েছেন কালীগঞ্জের সেন্ট মেরীস গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজের ২৫ শিক্ষক ও ৫ কর্মচারি, মসলিন কটন মিল উচ্চ বিদ্যালয়ের ১১ শিক্ষক ও ২ কর্মচারি, তুমিলিয়া বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ শিক্ষক, সাওরাইদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষক ও ১ কর্মচারি, শাদেরগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের ১ শিক্ষক এবং চুপাইর উচ্চ বিদ্যালয় ১ শিক্ষক।

জানা যায়, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক-কর্মচারী এবং সর্বসাধারণের স্বাস্থ্যঝুঁকি ও সুরক্ষার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয় গত ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও ‘শিক্ষা নিয়ে গড়বো দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ’ স্লোগান ধারণ করে এই দুর্যোগকালীন পরিস্থিতিতে ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় ‘সংসদ বাংলাদেশ টেলিভিশন’ এর মাধ্যমে ‘আমার ঘরে, আমার স্কুল’ প্রোগ্রাম চালু করে পাঠদান অব্যাহত রেখেছে।

এছাড়াও, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা ডিজিটাল তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে নিজ নিজ এলাকায় শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

‘করোনা মহামারির এই দুর্যোগকালীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় আর্থিক সংকটে থাকা নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের প্রধানমন্ত্রীর ‘বিশেষ অনুদান’ এর খাত থেকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ায় শিক্ষাবান্ধব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি সমগ্র শিক্ষা পরিবার অত্যন্ত কৃতজ্ঞ বলে জানিয়েেন অর্থ সহায়তা পাওয়া নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা।’

উল্লেখ্য : বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৪৬ কোটি ৬৩ লাখ ৩০ হাজার টাকার বিশেষ অনুদান দিয়েছেন বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

করোনা ভাইরাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ৬৪ জেলার ৮ হাজার ৪৯২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) নন-এমপিও ৮০ হাজার ৭৪৭ জন শিক্ষকের প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা হারে এবং ২৫ হাজার ৩৮ জন নন-এমপিও কর্মচারীর প্রত্যেককে ২ হাজার ৫০০ টাকা হারে মোট ১ লাখ ৫ হাজার ৭৮৫ জন শিক্ষক-কর্মচারীর জন্য ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে প্রধানমন্ত্রী তার ‘বিশেষ অনুদান’ খাত থেকে ৬৪ জন জেলা প্রশাসকের অনুকূলে বরাদ্দ দিয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close