মুক্তমত

করোনাভাইরাস : ভাপ নিয়ে ভাবনা

ডা. মো. নুরুজ্জামান : করোনার এই মহামারিতে ভাইরাসের মতো ভুয়া তথ্যও ছড়াচ্ছে ঢের। কেউ গরম পানিতে গোসল করছেন তিন বেলা। কারণ তিনি শুনেছেন, তাপমাত্রা বেশি হলে করোনাভাইরাস বাঁচে না। তিনি এটা জানেন না যে গরম পানিতে গোসল করে বাইরে ত্বকের তাপমাত্রা যতই বাড়ুক, গলার ভেতর বা ফুসফুস তো আর উত্তপ্ত হচ্ছে না।

কেউ আবার বলছেন, টানা গরম পানিতে গার্গল করলে করোনাভাইরাস মরে যাবে। মাউথওয়াশের কথাও শোনা যাচ্ছে। কিন্তু ভাইরাস একবার শরীরে প্রবেশ করার পর খুব দ্রুতই মানবকোষে ঢুকে যায় এবং নিজের কপি তৈরি করতে থাকে। যেন সে কোষের ভেতরে অবস্থান করে বাইরের তাপমাত্রা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারে।

এ কারণে ভাইরাসে একবার সংক্রমিত হলে গরম পানির গার্গল খুব একটা কাজে দেবে না। কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাস প্রথমেই আমাদের ফুসফুসে আক্রমণ করে সুস্থ কোষগুলো ক্ষতিগ্রস্ত করে। ফলে অনেকের শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। তবে নানা ভুল রটনা থাকলেও করোনার উপসর্গ উপশমে গরম ভাপ ও গরম পানীয় বেশ কাজের। এটা মানছেনও অনেকে। গরম পানীয় নাক ও মুখের লালা, শ্লেষ্মা নিঃসরণ বাড়িয়ে দিতে পারে। যার কারণে প্রদাহ কমে।

তবে করোনা থেকে সেরে ওঠা কেউ কেউ বলছেন, গরম ভাপ তাঁদের ক্ষেত্রে বেশ কাজে দিয়েছে। করোনার উপসর্গ যেমন সর্দি-কাশিতে গরম পানির সঙ্গে লবঙ্গ মিশিয়ে ভাপ নিয়েছেন অনেকে। গলার খুসখুসে ভাব দূর করতে আদা চা, মধু চাও পান করেছেন। গরম পানির ভাপ নিলে শ্বাস-প্রশ্বাস কিছুটা সময়ের জন্য স্বাভাবিক হয়ে আসে। আবার সাধারণ ঠাণ্ডা-সর্দিসহ আপার রেসপিরেটরি ইনফেকশনের ক্ষেত্রে গরম বাষ্পের ভাপ কাজে আসে। কিন্তু এটা সরাসরি কোনো ভাইরাস মারতে পারে না।

গরম পানির সঙ্গে লেবু, কমলা, পুদিনা মিশিয়ে সেটার ভাপ নিতে বলে পোস্ট করছেন অনেকেই। তাঁদের দাবি, এ ভাপ করোনা মেরে ফেলবে। সঙ্গে অনেকেই আদা, রসুন, মরিচ, চা ও নিমের কথাও বলছেন। বাদ যায়নি লবঙ্গ, তেজপাতা বা অন্য কোনো মসলাও। কিন্তু রয়টার্সের প্রতিবেদন বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কোনোটিই এসবের কোনো বৈধতা দেয়নি। এখন পর্যন্ত এসবের কার্যকারিতা বৈজ্ঞানিকভাবেও স্বীকৃতি পায়নি। উল্টো সতর্ক করে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এসব ভাপ নিলে বাড়তি ঝুঁকিতে পড়তে পারে রোগী।

আবার গরম পানির ভাপ নিতে গিয়ে অনেকের ত্বক পুড়ে যাওয়ার মতো ঘটনাও ঘটছে। আমেরিকান বার্ন অ্যাসোসিয়েশনের তথ্যমতে, মাত্র ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপযুক্ত বাষ্পের সংস্পর্শে তিন সেকেন্ড থাকলেই ত্বক পুড়বে।

শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বিভিন্ন ভেষজ চা পান করতে পারেন। এতে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে। তবে এতে রাতারাতি ভাইরাস সব মরে যাবে না। এতে লাভ হবে একটাই, পরে করোনা সংক্রমণের শিকার হলে তার বিরুদ্ধে যুদ্ধটা সহজ হবে।

 

 

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close