বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

গ্রামীণফোনের অভিনব প্রতারণা

গাজীপুর কণ্ঠ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক : গ্রামীণফোন ২০০৮ সালে ব্ল্যাকবেরি সার্ভিস প্রবর্তন করে। এবং তারপরেই ব্ল্যাকবেরি মোবাইল ফোন বিক্রি শুরু করে। ব্ল্যাকবেরি মোবাইল ফোন যারা কিনেছিল তাদেরকে প্রতি মাসে এক্সেস ফি বাবদ ১ হাজার ১৫০ টাকা দেওয়ার শর্ত ছিল। অনেক গ্রাহকই সেসময় গ্রামীণফোনের ব্ল্যাকবেরি ফোন নিয়েছিল। কিন্তু ২০১০ সালে প্রতিষ্ঠানটি আনুষ্ঠানিক এক ঘোষণা দিয়ে ব্ল্যাকবেরি সার্ভিস বন্ধ করে দিয়েছে। এরপর আর ব্ল্যাকবেরি কোন বিক্রি হয় নাই। কিন্তু এমন ঘোষণার পরও গ্রাহকদের সাথে প্রতারণা করছে তারা।

একজন গ্রাহক ব্ল্যাকবেরি ছেড়ে দিয়ে আইফোন নিয়েছেন। কিন্তু হঠাৎ একদিন তিনি আবিষ্কার করলেন গ্রামীণফোন চুপিচুপি তার কাছ থেকে ১ হাজার ১৫০ টাকা করে কেটে নিচ্ছে ব্ল্যাকবেরি এক্সেস ফি চার্জের নামে। এবং এটার সাথে যুক্ত আছে ট্যাক্স এবং ভ্যাট। এই নিয়ে গ্রাহক দফায় দফায় গ্রামীণফোনের সঙ্গে যোগাযোগ করার পরও কোন সমাধান হয়নি।

গত ১০ বৎসরে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে একজন গ্রাহকের কাছ থেকে গ্রামীণফোন। এই নিয়ে একাধিকবার গ্রামীণফোনের সঙ্গে অভিযোগ করা হলেও তারা নানা রকম ছল চাতুরি করে প্রতারণার আশ্রয় নিচ্ছে। এবং শুধু এইরকম একজন গ্রাহন না, গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে সরকার কর ফাঁকির অভিযোগ দিয়েছিল। এবং সেই মামলায় সর্বোচ্চ আদালতে গিয়ে তারা হেরে গিয়েছিল। সরকারের সাথেই যারা প্রতারণা করতে পারে, সাধারণ গ্রাহকদের সাথে তারা কি রকমের প্রতারণা করতে পারে তার সর্বশেষ উদাহরণ হল এটি। এই রকমভাবে প্রতারণা করে গ্রাহকদের টাকা হাতিয়ে নেওয়াই হল গ্রামীণফোনের প্রধান ব্যবসা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close