আলোচিতজাতীয়স্বাস্থ্য

কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য নমুনা দিলেন ৬৫ সাংসদ

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : বেশ কয়েকজন মন্ত্রী-সাংসদ কোভিড-১৯ শনাক্ত। তাঁদের বেশির ভাগই সংসদের চলমান বাজেট অধিবেশনের শুরুতে উপস্থিত ছিলেন। ফলে অন্যরাও শনাক্ত হওয়ার ঝুঁকির মধ্যে পড়েছেন। এ অবস্থায় সব সাংসদেরই কোভিড-১৯ শনাক্তের পরীক্ষা করাচ্ছে সংসদ সচিবালয়।

সংক্রমণের ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে বাজেট অধিবেশনে সাংসদদের ভাগ করে অধিবেশনে অংশ নেওয়ার পরিকল্পনা আগেই নেওয়া হয়। সে মোতাবেক প্রতিদিন ৮০ থেকে ৯০ জন সাংসদ অংশ নেন। প্রত্যেক সাংসদের আসনের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখা হচ্ছে। এরপরও কোনো ঝুঁকি নিতে চাইছে না সংসদ সচিবালয়।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানিয়েছে, অধিবেশনের আগামী চার কার্যদিবসে অংশ নেবেন এমন ১৭০ সাংসদের নমুনা পরীক্ষার জন্য ইতিমধ্যে চিঠি দেওয়া হয়েছে। সংসদের মেডিকেল সেন্টারে শনিবার থেকে নমুনা জমা দিচ্ছেন সাংসদেরা। প্রথম দিন ২০ জন সাংসদ নমুনা দিয়েছেন। রোববার আরও ৪৫ জন দিয়েছেন। সব মিলিয়ে দুই দিনে নমুনা দিয়েছেন ৬৫ জন। কাল সোমবারও সাংসদদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

আওয়ামী লীগের একজন গুরুত্বপূর্ণ সাংসদ নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সব সাংসদের কোভিড-১৯ পরীক্ষা বাধ্যতামূলক নয়। তবে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় নিয়োজিতরা ও সংসদ সচিবালয় চাইছে সবাই যাতে নমুনা দেন। সাংসদদের আসন দূরত্ব বজায় রেখে বিন্যাস করা হলেও অধিবেশনের আগে-পরে একে অন্যের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা হয়। এতে প্রধানমন্ত্রী, স্পিকারসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদেরও ঝুঁকি তৈরি হয়। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তাঁর ঘনিষ্ঠজনেরা সংসদ অধিবেশনে যোগ দিতে বারণ করেছেন। কিন্তু তিনি তা শোনেননি।

জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী বলেন, ‘আমরা তিন দিন নমুনা সংগ্রহের উদ্যোগ নিয়েছি। এটা বাধ্যতামূলক নয়। তবে সাংসদেরা সাড়া দিচ্ছেন।’ তিনি আরও বলেন, অনেক সাংসদ নিজের নির্বাচনী এলাকায় নিয়মিত ত্রাণ কার্যক্রম চালাচ্ছেন। কেউ কেউ ইতিমধ্যে নিজ উদ্যোগে নির্বাচনী এলাকায় কোভিড-১৯ পরীক্ষা করিয়েছেন। যাঁরা এখনো বাকি আছেন, তাঁদের নমুনা নেওয়া হচ্ছে।

এবার এখন পর্যন্ত বাজেট অধিবেশন তিন কার্যদিবস চলেছে। সংসদ সচিবালয় সূত্র জানিয়েছে, ২৩, ২৪, ২৯ ও ৩০ জুন সংসদের অধিবেশন চলতে পারে। অধিবেশনের কার্যক্রম চলবে সংক্ষিপ্ত পরিসরে।

চলতি বাজেট অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন, এমন দুজন সাংসদসহ অন্তত ১৫ জন কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছেন। সর্বশেষ শনিবার নড়াইল-২ আসনের সাংসদ মাশরাফি বিন মুর্তজার কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া সংসদ সচিবালয়ের প্রায় ১০০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছেন।

 

সূত্র: প্রথম আলো

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close