আন্তর্জাতিক

জুলাইয়ের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে মারা যেতে পারেন ২ লাখ ৯০ হাজার মানুষ

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নতুন এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ শে জুলাইয়ের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াতে পারে ৫৪ লাখ। এ সময়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াতে পারে দুই লাখ ৯০ হাজার।

ইউনিভার্সিটি অব পেনসিলভ্যানিয়ার ওয়ার্টন স্কুল থেকে দেয়া পূর্বাভাসের মডেলে এ কথা বলা হয়েছে।

বলা হয়েছে, সামাজিক কোনরকম দূরত্ব বজায় না রেখে যদি সব রাজ্যকে নতুন করে খুলে দেয়া হয় তাহলে এমন পরিণতি ঘটতে পারে। এতে তুলনামুলক চিত্র তুলে ধরে বলা হয়েছে, যদি সব রাজ্য খুলে দেয়া হয় কিন্তু ব্যক্তিবিশেষ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টা করেন তাহলে ২৪ শে জুলাইয়ের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াতে পারে ৪৩ লাখ। আর মৃতের সংখ্যা দাঁড়াতে পারে দুই লাখ ৩০ হাজার।

অন্যদিকে ইউম্যাস ইনফ্লুয়েঞ্জা ফোরকাষ্টিং সেন্টার অব এক্সিলেন্স তার প্রক্ষেপণে বলেছে, মধ্য জুনের মধ্যে মৃতের সংখ্যা এক লাখ ১৩ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লাখের বেশি।

মারা গেছেন কমপক্ষে ৯২ হাজার মানুষ। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডেইলি মেইল।

এতে বলা হয়েছে, যদি স্টে-অ্যাট-হোম নির্দেশ আংশিকভাবে প্রত্যাহার করা হয় কিন্তু সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে বলা হয়, তাহলে আক্রান্তের সংখ্যা হতে পারে ৩১ লাখ। আর মৃতের সংখ্যা দাঁড়াতে পারে এক লাখ ৭২ হাজার। তবে সবচেয়ে ভাল ফল আসতে পারে যদি প্রতিটি রাজ্য ১৭ই মের লকডাউন বিধিনিষেধ রক্ষা করতে পারে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তাহলে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াতে পারে ২৮ লাখ। মৃতের সংখ্যা দাঁড়াতে পারে এক লাখ ৫৭ হাজার।

এরই মধ্যে মধ্য মে’র মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের বেশির ভাগ রাজ্যই কোভিড-১৯ কে কেন্দ্র করে যে লকডাউন দেয়া হয়েছিল তা প্রত্যাহার করেছে। ওদিকে ইউম্যাস ইনফ্লুয়েঞ্জা ফোরকাস্টিং সেন্টার অব এক্সিলেন্স তার প্রক্ষেপণে বলেছে, মধ্য জুনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা এক লাখ ১৩ হাজার ছাড়িয়ে যাবে। ৯টি আলাদা প্রতিষ্ঠানের মডেলকে একত্রিত করে তার ওপর ভিত্তি করে পূর্বাভাষ দিয়েছে তারা। এতে বলা হয়েছে, আগামী ২৫ দিনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে মোটামুকি ২২ হাজার মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারাতে পারেন। ওই সেন্টারের পরিচালক নিকোলাস রেইচ এসব তথ্য দিয়েছেন।

ওদিকে এ সময়ের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে এক লাখ ১৩ হাজার ৩৬৪ জন মানুষ মারা যাবেন বলে আগে থেকেই পূর্বাভাষ দেয়া হয়েছে। বিপর্যস্ত অর্থনীতি এবং অবরুদ্ধ মানুষের জীবনকে সচল করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের বেশির ভাগ রাজ্য যখন খুলে দেয়া হয়েছে বা হচ্ছে তখন এমন পূর্বাভাষ দেয়া হলো।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close