শিক্ষা

কিন্ডারগার্টেন রুখতে দুই বছর মেয়াদি প্রাক-প্রাথমিক হচ্ছে

গাজীপুর কণ্ঠ, শিক্ষা ডেস্ক : সরকারি বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিকে ভর্তির ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের বয়স পাঁচ থেকে কমিয়ে চার এবং এক বছরের পরিবর্তে শ্রেণির মেয়াদ দুই বছর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। আগামী ২০২২ সাল থেকে দেশের সব বিদ্যালয়ে এটি কার্যকর করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুমোদন চেয়ে গত বুধবার একটি সারসংক্ষেপ জমা দেওয়া হয়েছে। এতে প্রস্তাবনার পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে বলা হয়েছে, সরকারিভাবে বাংলাদেশে দুই বছরমেয়াদি প্রাক-প্রাথমিক স্তর চালু না থাকায় বেসরকারি উদ্যোগে কিন্ডারগার্টেনের প্রসার ঘটছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বর্তমানে সরকারি বিদ্যালয়ে শিশুদের এক বছর মেয়াদে প্রাক-প্রাথমিকে পড়তে হয়। এই শ্রেণিতে ভর্তি হওয়ার জন্য ন্যূনতম পাঁচ বছর বয়সের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষাব্যবস্থা আকর্ষণীয় করতে নানা পদক্ষেপের অংশ হিসেবে প্রাক-প্রাথমিক স্তর ঢেলে সাজানো হচ্ছে। এজন্য সারা দেশের ৬৫ হাজার ৬২০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রাক-প্রাথমিক স্তরে শিশু উপযোগী (ডেডিকেটেড ক্লাসরুম) ৩০ হাজার শ্রেণিকক্ষ নির্মাণ ও ৬৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের পরিকল্পনা রয়েছে। ইতিমধ্যে কোমলমতিদের উপযোগী কারিকুলাম প্রণয়নে কাজ শুরু করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষক বদলি নীতিমালাও কড়াকড়ি করা হচ্ছে। শিশুদের জন্য প্রতিটি বিদ্যালয়ে একজন করে পরিচর্যাকারী (কেয়ার গিভার) নিয়োগ দেওয়া হবে।

সারসংক্ষেপে দুই বছরমেয়াদি প্রাক-প্রাথমিক স্তরের যৌক্তিকতা তুলে ধরে বলা হয়েছে, এশিয়ার মধ্যে জাপান, কোরিয়া, চীন, সিঙ্গাপুর ও ভারতে প্রাক-প্রাথমিকের মেয়াদ দুই বছর, যা ইউনেসকোর ২০১৬ সালের প্রতিবেদন অনুযায়ী বিশ্বের ৪৯ শতাংশ দেশে রয়েছে। আর উন্নত বিশ্বেরসহ ১০ শতাংশ দেশে প্রাক-প্রাথমিক স্তর তিন বছরের।

এ বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন বলেন, ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষাব্যবস্থা আকর্ষণীয় করার অংশ হিসেবে প্রাক-প্রাথমিক স্তর ঢেলে সাজানো হচ্ছে। শিক্ষানীতি-২০১০-এ দুই বছরের প্রাক-প্রাথমিকের কথা বলা আছে। সে আলোকে সময় বাড়ানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এজন্য যুগোপযোগী কারিকুলাম প্রণয়নে এনসিটিবির একটি কমিটি কাজ করছে।’

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা অর্জনে সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা এবং মা সমাবেশে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন জানান, কিন্ডারগার্টেনের শিক্ষা নিরুৎসাহিত করতে সরকার দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক স্তর যুগোপযোগী করছে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রচেষ্টায় বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই ও পোশাক তুলে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে। প্রাক-প্রাথমিকে উন্নত শিক্ষা দেওয়া গেলে কোমলমতিদের ঝরেপড়া কমবে বলেও জানান তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close