আলোচিতরাজনীতি

ঢাকার সিটি নির্বাচনে বিপুল ব্যবধানে জিতবে নৌকা: জয়

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীরা বিপুল ব্যবধানে বিজয়ী হতে যাচ্ছে বলে জরিপ চালিয়ে দেখেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

একটি জরিপের ফলাফল ভোটগ্রহণের দুদিন আগে বৃহস্পতিবার নিজের ফেইসবুক পাতায় শেয়ার করেছেন তিনি।

তিনি লিখেছেন, “এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের বিজয় শুধু নিশ্চিতই নয়, ব্যাপক ব্যবধানে জয়ও নিশ্চিত।”

প্রধানমন্ত্রীপুত্র জয় বলেছেন, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের মেয়র নির্বাচন নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে এই জনমত জরিপটি করা হয়েছিল। দ্বৈবচয়নের ভিত্তিতে উত্তরের ১৩০১ জন ও দক্ষিণের ১২৪৫ ভোটারের মতামত নিয়ে এই জরিপটি চালানো হয়।

“জরিপটি করা হয় সামনাসামনি, অর্থাৎ অনলাইনের মাধ্যমে নয়। মক ব্যালট এর মাধ্যমে এই জরিপটি করার কারণে আমরা বা জরিপকারী কারোরই জানার সুযোগ থাকে না কে কাকে ভোট দিল।”

‘জরিপ করার সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ও নির্ভুল পদ্ধতি এটি’- এ মন্তব্য করে তিনি লিখেছেন, “নির্ভয়ে, নির্দ্বিধায় মানুষ জরিপে অংশগ্রহণ করতে পারে। তারপরেও যারা কোনো অপশনই বেছে নেয় না, তাদের ভোট দেওয়ার সম্ভাবনাই কম। কারণ সাধারণত কোনো নির্বাচনেই ১০০% ভোট পড়ে না। এই জরিপের ফলাফল ভুল হওয়ার সম্ভাবনা +-৩%।”

এর আগে সংসদ নির্বাচনসহ কয়েকটি নির্বাচনের আগে নিজের উদ্যোগে পরিচালিত জরিপের ফল জানিয়েছিলেন জয়, যার সঙ্গে ভোটের ফল অনেকটাই মিলে গিয়েছিল।

এবার ঢাকা সিটি ভোটের জন্য রাজনৈতিক দলগুলো যখন তাদের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছিল, তখনই নতুন জরিপটি চালানো হয় বলে জানান জয়।

তিনি বলেন, “তাই জরিপের সাথে আসল ফলাফলের কিছুটা পার্থক্য হতেই পারে। তারপরেও সেই পার্থক্য ৫-১০% এর বেশি হওয়ার সম্ভাবনা একেবারেই কম।

“কারণ মাত্র এক মাসের ব্যবধানে ১০% এর বেশি ভোট কোনো দলের পক্ষেই পরিবর্তন করে নিজেদের পক্ষে নিয়ে আসা কঠিন। তাই এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের বিজয় শুধু নিশ্চিতই নয়, ব্যাপক ব্যবধানে জয়ও নিশ্চিত।”

ভোটার জরিপের উত্তরের ফলাফলও ফেইসবুকে তুলে ধরেছেন তিনি।

তাতে দেখা যাচ্ছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলামের পক্ষে রয়েছেন ৫০ দশমিক ৭ শতাংশ মানুষ। বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আওয়ালের ১৭ দশমিক ৪ শতাংশ।

উত্তর সিটির জরিপে সিদ্ধান্ত দেননি ২৫ দশমিক ৩ শতাংশ ভোটার, উত্তর দেননি ৪ দশমিক ৪ শতাংশ এবং ভোট দেবেন না বলে জানিয়েছেন শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ ফজলে নুর তাপসের পক্ষে রয়েছেন ৫৪ দশমিক ৩ শতাংশ ভোটার। বিএনপির প্রার্থী ইশরাক হোসেনের পক্ষে ১৮ দশমিক ৭ শতাংশ।

দক্ষিণ সিটির জরিপে সিদ্ধান্ত দেননি ১৬ দশমিক ৮ শতাংশ ভোটার, উত্তর দেননি ৪ দশমিক ২ শতাংশ এবং ভোট দেবেন না বলে জানিয়েছেন ৩ দশমিক ৮ শতাংশ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close