আলোচিত

‘আর্থিক সংশ্লিষ্টতা’ পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা, ওসিদের আইজিপির সতর্ক বার্তা

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : ঢাকা ও ঢাকার বাইরের ৯০ ওসিকে সতর্ক বার্তা দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

ওসিদের উদ্দেশ্যে পুলিশপ্রধান বলেছেন, থানায় আসা ভিকটিমকে সেবা দিয়ে হাসিমুখে বিদায় করতে হবে। দেশের প্রত্যেক থানার ওসিকে তা নিশ্চিত করতে হবে। মামলা, জিডি বা অন্য কোনো কাজে কেউ থানায় এলে তাদের কাছ টাকা-পয়সা নেয়া চলবে না। সেবার বিনিময়ে কোনো পুলিশ সদস্যের আর্থিক সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের কনফারেন্স রুমে মঙ্গলবার বিকালে এক কর্মশালায় আইজিপি বলেন, থানায় কর্মরত কর্মকর্তাদের সক্ষমতা বাড়ানোর মাধ্যমে সেবার মান উন্নত করা সম্ভব। এ বিষয়টি মাথায় রেখে জনগণকে অধিকতর আইনি সেবা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ পুলিশের সব থানার ৬৯২ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে পর্যায়ক্রমে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। যা ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।

প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আওতায় পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেবেন। প্রথমদিনের কর্মসূচিতে ঢাকা ও ঢাকার বাইরের ৯০ ওসিকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। কর্মশালায় মোট ৭টি সেশনে পিআরবি, সিডিএমএস, তথ্য সংগ্রহ, পুলিশের ইমেজ বৃদ্ধি, পুলিশ-মিডিয়া সম্পর্ক, গুজব, সাইবার ক্রাইম, নারী নির্যাতন ইত্যাদি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

আইজিপি বলেন, পুলিশকে জনগণের আস্থা এবং বিশ্বাস অর্জন করতে হবে। তাদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতে হবে। তাদের দ্রুততম সময়ে সেবা প্রদান করতে হবে। তিনি পুলিশকে জনগণের কাছে যেতে এবং জনগণের পুলিশ হতে নির্দেশনা দেন।

আইজিপি বলেন, থানা হল পুলিশি সেবা প্রদানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইউনিট। থানায় কর্মরত পুলিশ সদস্যদের জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করতে হবে। বাংলাদেশ পুলিশকে গণমুখী তথা জনগণের পুলিশে পরিণত করাই এ কর্মশালার লক্ষ্য।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close