আলোচিত

পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ ‘বাণিজ্য ঠেকাতে’ ৬৪ জেলায় শক্তিশালী তদারকি টিম

গাজীপুর কণ্ঠ ডেস্ক : পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হবে আগামীকাল ২২ জুন, শেষ হবে ৯ জুলাই। এই নিয়োগে তদবির-বাণিজ্য ঠেকাতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর। এ নিয়ে রেঞ্জ ডিআইজি ও পুলিশ সুপারদের কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি)। সদর দপ্তর থেকে প্রতি জেলার জন্য একজন পুলিশ সুপারের (এসপি) নেতৃত্বে একটি করে তদারকি টিম গঠন করা হয়েছে। পরীক্ষা শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই টিমগুলো দেশের ৬৪ জেলায় সফর করবে। আর্থিক লেনদেনে জড়িত থাকার প্রমাণ মিললে তিনি এসপি হলেও তাকে তাৎক্ষণিক গ্রেপ্তার করবে তদারকি টিম। কোনো প্রার্থী উত্তীর্ণ হওয়ার আগেই রাজনৈতিক নেতাদের দিয়ে তদবির করালে তার প্রার্থিতা বাতিল করতে বলা হয়েছে সদর দপ্তর থেকে। তবে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর নেতাদের তদবির এলে ‘কৌশলে এড়িয়ে’ যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে এমপি-মন্ত্রীদের ডিও লেটার (আধা সরকারি পত্র) যাচাই-বাছাই করতে বলা হয়েছে।

আইজিপি রেঞ্জ ডিআইজি ও এসপিদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রার্থীদের কাছ থেকে কোনোভাবেই যেন ১০৩ টাকার বেশি নেওয়া না হয়। নির্দেশনা পেয়ে বেশির ভাগ জেলার এসপি ঘোষণা দিয়েছেন, সরকারি ফি (১০৩ টাকা) ছাড়া প্রার্থীদের আর কোনো টাকা লাগবে না। ঘোষণায় কেউ বেশি টাকা দাবি করলে রেঞ্জ ডিআইজি, এসপি কার্যালয় বা থানায় যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। আর তদবির করলেই প্রার্থিতা বাতিলসহ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে আইজিপি মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বৃহস্পতিবার বলেন, স্বচ্ছতার মাধ্যমেই পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ দেওয়া হবে। নিয়োগে কোনো ধরনের ঘুষ লেনদেন করলেই কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি এসপি হলেও তাকে প্রত্যাহার করার পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যেসব প্রার্থীর যোগ্যতা থাকবে, তারাই নিয়োগ পাবেন। তদবির এলে শোনা যাবে না। প্রতিটি জেলায় তদারকি টিম কাজ করবে।

পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কিছুদিন আগে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে ৯ হাজার ৬৮০ জন ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগের একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এর মধ্যে ৬ হাজার ৮০০ জন পুরুষ ও ২ হাজার ৮৮০ জন নারী। প্রতিটি জেলার পুলিশ লাইনস মাঠে প্রার্থীদের বাছাই করা হবে। শারীরিক মাপ ও শারীরিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। পরে মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার পর প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে।

গাইবান্ধার এসপি আবদুল মান্নান মিয়া বলেন, পুলিশের চাকরি পেতে কোনো টাকা-পয়সা লাগবে না। জমিজমা বিক্রি করতে হবে না। মাত্র ১০৩ টাকায় পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি পাওয়া যাবে। এর মধ্যে ১০০ টাকার ব্যাংক ড্রাফট, ৩ টাকার ফরম কিনলেই হবে। তদবির করে কেউ চাকরির চেষ্টা করবেন না। নিজের যোগ্যতা দিয়ে পুলিশে চাকরি নিয়ে দেশের সেবা করবেন। চাকরির জন্য দালাল ধরতে পারবেন না। সততা থাকলেই পুলিশে চাকরি করতে আসবেন। একই ধরনের কথা বলেন মৌলভীবাজারের এসপি মোহাম্মদ শাহজালাল, কুমিল্লার এসপি সৈয়দ নুরুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জের এসপি হারুন অর রশীদ, চুয়াডাঙ্গার এসপি মাহবুবুর রহমান, ঢাকার এসপি শাহ মিজান শাফিউর রহমান ও টাঈাইলের এসপি সঞ্জিত কুমার রায়।

সংশ্লিষ্টরা জানান, পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগে নানা অনিয়ম হয়। ঘুষ লেনদেনই হয় বেশি। কনস্টেবল নিয়োগের অধিকর্তা হলেন জেলার এসপি। প্রায় প্রতিটি জেলার রাজনৈতিক নেতাকর্মী, মন্ত্রী-এমপিসহ আমলারাও তদবির করেন পুলিশের কাছে। তা ছাড়া এক শ্রেণির দুর্নীতিবাজ পুলিশ সদস্যও নিয়োগে তদবির চালান। এই সবকিছুর নেপথ্যে থাকে আর্থিক লেনদেন। অনিয়ম ও দুর্নীতি বন্ধ করতেই পুলিশ সদর দপ্তর কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছক সদর দপ্তরের এক কর্মকর্তা বলেন, ডিআইজি ও এসপিদের কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আইজিপি। এ নিয়ে বৃহস্পতিবারও মিটিং হয়েছে। অনেক জেলার এসপিই মোটা অঙ্কের টাকা পেয়ে নিয়োগ দিয়ে থাকেন। এসব কারণে একজন পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে একটি করে তদারকি টিম গঠন করা হয়েছে। তা ছাড়া প্রতিটি জেলায় আইজিপির নিজস্ব গোয়েন্দা টিমও কাজ করবে।

কোন জেলায় কতজন নিয়োগ হবে : পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ঢাকা জেলায় বিশেষ কোটায় ৭৮২ পুরুষ ও ২৬২ নারী, নতুন পদে ১৬৪ পুরুষ ও ২৯ নারী, গাজীপুরে বিশেষ কোটায় ৮৫ পুরুষ ও ৪৪ নারী এবং নতুন পদে ৪৬ পুরুষ ও ৮ নারী, মানিকগঞ্জে বিশেষ কোটায় ৭০ পুরুষ ও ৩৯ নারী, নতুন পদে ১৯ পুরুষ ও ৩ নারী, মুন্সীগঞ্জে বিশেষ কোটায় ১৬৪ পুরুষ ও ৩৯ নারী, নতুন পদে ২০ পুরুষ ও ৩ নারী, নারায়ণগঞ্জে বিশেষ কোটায় ২৪০ পুরুষ ও ৭০ নারী, নতুন পদে ৪০ পুরুষ ও ৭ নারী, নরসিংদীতে বিশেষ কোটায় ৫ পুরুষ ও ৩৬ নারী, নতুন পদে ৩০ পুরুষ ও ৫ নারী, ফরিদপুরে বিশেষ কোটায় ২৪ নারী, নতুন পদে ২৬ পুরুষ ও ৫ নারী, গোপালগঞ্জে বিশেষ কোটায় ৩ নারী, নতুন পদে ১৬ পুরুষ ও ৩ নারী, মাদারীপুরে বিশেষ কোটায় ১৫ পুরুষ ও ২০ নারী, নতুন পদে ১৬ পুরুষ ও ৩ নারী, রাজবাড়ীতে বিশেষ কোটায় ৪৮ পুরুষ ও ১৭ নারী, নতুন পদে ১৪ পুরুষ ও ৩ নারী, শরীয়তপুরে বিশেষ কোটায় ৩৬ পুরুষ ও ২৫ নারী, নতুন পদে ১৬ পুরুষ ও ২ নারী, কিশোরগঞ্জে বিশেষ কোটায় ৫০ পুরুষ ও ৫৬ নারী, নতুন পদে ৪০ পুরুষ ও ৭ নারী, টাঈাইলে বিশেষ কোটায় ৭ নারী, নতুন পদে ৪৯ পুরুষ ও ৯ নারী, ময়মনসিংহে বিশেষ কোটায় ৮২ পুরুষ ও ৯৩ নারী, নতুন পদে ৭০ পুরুষ ও ১২ নারী, জামালপুরে বিশেষ কোটায় ৬ পুরুষ ও ২৮ নারী, নতুন পদে ৩১ পুরুষ ও ৬ নারী, নেত্রকোনায় বিশেষ কোটায় ৪০ নারী, নতুন পদে ৩০ পুরুষ ও ৫ নারী, শেরপুরে বিশেষ কোটায় ২৮ পুরুষ ও ২৩ নারী, নতুন পদে ১৯ পুরুষ ও ৩ নারী, চট্টগ্রামে বিশেষ কোটায় ৭৬৩ পুরুষ ও ২০১ নারী, নতুন পদে ১০৪ পুরুষ ও ১৮ নারী, বান্দরবানে বিশেষ কোটায় ৪৫ পুরুষ ও ৮ নারী, নতুন পদে ৫ পুরুষ ও ১ নারী, কক্সবাজারে বিশেষ কোটায় ২৯৫ পুরুষ ও ৫৪ নারী, নতুন পদে ৩১ পুরুষ ও ৬ নারী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিশেষ কোটায় শুধু ৫৩ নারী, নতুন পদে ৩৯ পুরুষ ও ৬ নারী, চাঁদপুরে বিশেষ কোটায় ২৯ পুরুষ ও ৫৫ নারী, নতুন পদে ৩৩ পুরুষ ও ৬ নারী, কুমিল্লায় বিশেষ কোটায় ১০০ পুরুষ ও ১২১ নারী, নতুন পদে ৭৩ পুরুষ ও ১৩ নারী, খাগড়াছড়িতে বিশেষ কোটায় ৪১ পুরুষ ও ১৪ নারী, নতুন পদে ৮ পুরুষ ও ২ নারী, ফেনীতে বিশেষ কোটায় ৩০ পুরুষ ও ৩৭ নারী, নতুন পদে ২০ পুরুষ ও ৩ নারী, লক্ষ্মীপুরে বিশেষ কোটায় ১৩২ পুরুষ ও ৩৬ নারী, নতুন পদে ২৪ পুরুষ ও ৪ নারী, নোয়াখালীতে বিশেষ কোটায় ১১৬ পুরুষ ও ৬৭ নারী, নতুন পদে ৪২ পুরুষ ও ৭ নারী, রাঙ্গামাটিতে বিশেষ কোটায় ৬৮ পুরুষ ও ১৫ নারী, নতুন পদে ৮ পুরুষ ও ২ নারী, রাজশাহীতে বিশেষ কোটায় ৯ পুরুষ ও ৩৭ নারী, নতুন পদে ৩৫ পুরুষ ও ৭ নারী, জয়পুরহাটে বিশেষ কোটায় ৪২ পুরুষ ও ১৬ নারী, নতুন পদে ১৩ পুরুষ ও ২ নারী, পাবনায় বিশেষ কোটায় ৬৪ পুরুষ ও ৪৭ নারী, নতুন পদে ৩৪ পুরুষ ও ৬ নারী, সিরাজগঞ্জে বিশেষ কোটায় ৬৩ পুরুষ ও ৬৬ নারী, নতুন পদে ৪২ পুুরুষ ও ৮ নারী, নাটোরে বিশেষ কোটায় ২৪ পুরুষ ও ১৮ নারী, নতুন পদে ২৩ পুরুষ ও ৪ নারী, চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিশেষ কোটায় শুধু ১৮ নারী, নতুন পদে ২২ পুরুষ ও ৪ নারী, বগুড়ায় বিশেষ কোটায় ১২১ পুরুষ ও ৬৪ নারী, নতুন পদে ৪৬ পুরুষ ও ৮ নারী, রংপুরে বিশেষ কোটায় ১৮৯ পুরুষ ও ৫১ নারী, নতুন পদে ৩৯ পুরুষ ও ৭ নারী, দিনাজপুরে বিশেষ কোটায় ১৩ পুরুষ ও ১৯ নারী, নতুন পদে ৪১ পুরুষ ও ৭ নারী, গাইবান্ধায় বিশেষ কোটায় ৬৩ পুরুষ ও ৪৩ নারী, নতুন পদে ৩২ পুরুষ ও ৬ নারী, কুড়িগ্রামে বিশেষ কোটায় নেই, নতুন পদে ২৮ পুরুষ ও ৫ নারী, লালমনিরহাটে বিশেষ কোটায় ৭ নারী, নতুন পদে ১৭ পুরুষ ও ৩ নারী, পঞ্চগড়ে বিশেষ কোটা নেই, নতুন পদে ১৪ পুরুষ ও ২ নারী, ঠাকুরগাঁওয়ে বিশেষ কোটায় ১৫ নারী, নতুন পদে ১৯ পুরুষ ও ৪ নারী, খুলনায় বিশেষ কোটায় ৩১ পুরুষ ও ৪৬ নারী, নতুন পদে ৩১ পুরুষ ও ৬ নারী, যশোরে বিশেষ কোটায় ১০৩ পুরুষ ও ৪৬ নারী, নতুন পদে ৩৮ পুরুষ ও ৬ নারী, ঝিনাহদহে বিশেষ কোটায় ৬ পুরুষ ও ২৫ নারী, নতুন পদে ২৪ পুরুষ ও ৪ নারী, নড়াইলে বিশেষ কোটায় ৮ নারী, নতুন পদে ১০ পুরুষ ও ২ নারী, বাগেরহাটে বিশেষ কোটায় ৭ নারী, নতুন পদে ২০ পুরুষ ও ৪ নারী, সাতক্ষীরায় বিশেষ কোটায় ১৭ পুরুষ ও ২৩ নারী, চুয়াডাঙ্গায় বিশেষ কোটায় ৮ পুরুষ ও ২০ নারী, নতুন পদে ১৫ পুরুষ ও ৩ নারী, কুষ্টিয়ায় বিশেষ কোটায় ২২ পুরুষ ও ২২ নারী, নতুন পদে ২৬ পুরুষ ও ৫ নারী, মেহেরপুরে বিশেষ কোটায় ৮ নারী, নতুন পদে ৯ পুরুষ ও ১ নারী, বরিশালে বিশেষ কোটায় ৮ নারী, নতুন পদে ৩২ পুরুষ ও ৫ নারী, ভোলায় বিশেষ কোটায় ১২৭ পুরুষ ও ৪৮ নারী, ঝালকাঠিতে বিশেষ কোটায় ২ পুরুষ ও ৭ নারী, নতুন পদে ৯ পুরুষ ও ২ নারী, পিরোজপুরে বিশেষ কোটায় ১ পুরুষ ও ১৪ নারী, নতুন পদে ১৫ পুরুষ ও ৩ নারী, বরগুনায় বিশেষ কোটায় ১১ পুরুষ ও ১৬ নারী, পটুয়াখালীতে বিশেষ কোটায় ৮০ পুরুষ ও ২৫ নারী, নতুন পদে ২১ পুরুষ ও ৪ নারী, সিলেটে বিশেষ কোটায় ২৩৬ পুরুষ ও ৫৭ নারী, নতুন পদে ৪৭ পুরুষ ও ৮ নারী, মৌলভীবাজারে বিশেষ কোটায় ৭১ পুরুষ ও ৩৪ নারী, নতুন পদে ২৬ পুরুষ ও ৫ নারী, সুনামগঞ্জে বিশেষ কোটায় ১৭০ পুরুষ ও ৪৬ নারী, নতুন পদে ৩৩ পুরুষ ও ৬ নারী এবং হবিগঞ্জে বিশেষ কোটায় ২৯ পুরুষ ও ৩৪ নারী, নতুন পদে ২৯ পুরুষ ও ৫ নারীকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

 

সূত্র: দেশ রূপান্তর

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button
Close
Close